অভিশংসনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ ট্রাম্পের আইনজীবীদের

আন্তর্জাতিক

যুক্তরাষ্ট্রের সদ্য বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের আইনজীবীরা বলেছেন, মেয়াদ শেষ হওয়ার পর কোনো প্রেসিডেন্টের অভিশংসন বিচার চালানোর বৈধতা মার্কিন সেনেটের থাকে না।

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসনের অভিযোগের আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়ায় মঙ্গলবার তারা এ কথা বলেছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

সাবেক প্রেসিডেন্টের আইনজীবীদের ভাষ্যের বিপরীতে অভিশংসন মামলার কৌঁসুলির দায়িত্ব পালন করা ডেমোক্র্যাট আইনপ্রণেতারা ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটলে সমর্থকদের হামলার দায় পুরোপুরিভাবে ট্রাম্পকেই দিয়েছেন।

রয়টার্স জানিয়েছে, সেনেটে অভিশংসন বিচারের যুক্তিতর্ক শুরুর এক সপ্তাহ আগে মঙ্গলবার ট্রাম্পের আইনি দল ও প্রতিনিধি পরিষদের প্রতিনিধিত্ব করা নয় ডেমোক্র্যাট নিজ নিজ পক্ষের প্রাথমিক আলোচনা তুলে ধরেন।

২০ জানুয়ারি মেয়াদ শেষে দায়িত্ব হস্তান্তরের পর ট্রাম্প ‘এখন সাধারণ নাগরিক’, এই যুক্তি তুলে গত সপ্তাহে সেনেটে অভিশংসন বিচার বাতিল করার দাবি করেছিলেন রিপাবলিকান সদস্যরা। ডেমোক্র্যাট নিয়ন্ত্রিত সেনেটে এই প্রস্তাব হালে পানি না পেলেও ৫০ রিপাবলিকান সেনেটরের মধ্যে ৪৫ জন এর প্রতি সমর্থন জানিয়েছিলেন।

এখন ট্রাম্পের আইনজীবীরা গত সপ্তাহের ওই বিতর্কের ওপরই জোর দিচ্ছেন। ফের একই যুক্তি সামনে এনেছেন তারা।

ক্যাপিটলে সমর্থকদের হামলার আগে দেওয়া বক্তৃতায় ট্রাম্পই সহিংসতা উসকে দিয়েছিলেন বলে ডেমোক্র্যাটরা যে অভিযোগ এনেছে ১৪ পৃষ্ঠার ব্রিফিংয়ে তাও অস্বীকার করেছে ট্রাম্পের আইনজীবী দল। ট্রাম্পের বক্তৃতা যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধানের প্রথম সংশোধনীতে দেওয়া বাক স্বাধীনতার অধিকার দ্বারা সুরক্ষিত বলে দাবি করেছেন তারা।

রয়টার্স লিখেছে, সাবেক প্রেসিডেন্টের বিচারে সেনেটের সাংবিধানিক বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ করে ট্রাম্পের আইনজীবীরা মূলত রিপাবলিকান সেনেটরদেরকে বড় ধরনের সুবিধা করে দিয়েছেন। এর ফলে রিপাবলিকানরা এখন ট্রাম্পের ৬ জানুয়ারির বক্তব্য নিয়ে বিতর্ককে পাশ কাটিয়েই তাকে দোষী সাব্যস্ত করার বিরুদ্ধে ভোট দেওয়ার সুযোগ পেয়েছেন।

মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়া প্রেসিডেন্টের বিচার করা যাবে কিনা- এ প্রসঙ্গে প্রশ্ন যে উঠবে তা আগে থেকে ধারণা করা প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্র্যাট প্রতিনিধিরা ট্রাম্পের আইনজীবীদের বক্তব্য খারিজ করে দিয়েছেন।

তারা উচ্চকক্ষের সদস্যদের প্রতি ট্রাম্পকে দোষী সাব্যস্ত করতে এবং সদ্য বিদায়ী এ প্রেসিডেন্ট যেন আর কখনোই সরকারি কোনো পদের জন্য লড়তে না পারেন তা নিশ্চিত করারও আহ্বান জানিয়েছেন।

ট্রাম্পকে দোষী সাব্যস্ত করতে সেনেটের দুই তৃতীয়াংশ সদস্যের সমর্থন লাগবে। উচ্চকক্ষে এখন ডেমোক্র্যাটরা খুবই সামান্য ব্যবধানে সংখ্যাগরিষ্ঠ হওয়ায় শেষ পর্যন্ত ট্রাম্প খালাস পেয়ে যাবেন বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য