ঘোড়াঘাটে আদিবাসী তরুনীকে ধর্ষনের অভিযোগে গ্রেফতার-৩

দিনাজপুর

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর জেলার ঘোড়াঘাটে এক আদিবাসী তরুনীকে ফোন করে ডেকে এনে তিন বন্ধু রাতভর গনধর্ষন করার অভিযোগে ঘোড়াঘাট থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে আসামীদের গ্রেফতার করে সমবার জেল হাজতে প্রেরন করেছে।

থানা এজাহার সুত্রে জানা যায়, ঘোড়াঘাট পৌর এলাকার বাওপুকুর গ্রামের মৃত চরন হাসদার দশম শ্রেণীর ছাত্রীর সাথে ১৮মাস আগে জনকৈ রাজুর সাথে ভালোবাসার সম্পর্ক গড়ে উঠে।

পরবর্তিতে লাবু নামের এক যুবক ওই ছাত্রীর মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে গত ৩০জানুয়ারী গভীর রাতে ওই কিশোরীর বাড়ীর পাশে আঃ রহমানের লিচু বাগানে দেখা করতে কৌশলে ডেকে আনে। সেখানে আগে থেকে তার আরো দুই বন্ধু মিলে তরুনীকে রাতভর গনধর্ষণ করে রক্তাক্ত অবস্থায় বাগানে ফেলে যায়।

সকালে তার মা তাকে না পেয়ে অনেক খোঁজাখুঁজি করে অবশেষে ওই বাগান থেকে তাকে উদ্ধার করে বাড়ীতে নিয়ে আসে। ঘোড়াঘাট থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ আজিম উদ্দিন জানান, গত রোববার সন্ধায় ভিকটিমকে নিয়ে তার মা রানী সরেন থানায় এসে মামলা দায়ের করলে তাৎক্ষনিক পৃথক পৃথক স্থানে অভিযান চালিয়ে ধর্ষকদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হই।

গ্রেফতারকৃত আসামিরা হলো উপজেলার ঘুঘুরা গ্রামের মৃত লাল মিয়ার ছেলে লাবু মিয়া(২৮),একই গ্রামের আহম্মদ আলীর ছেলে রাজমিস্ত্রি আশরাফুল ইসলাম(৩৫) ও বাওপুকুর গ্রামের বেল্লাল হোসেনের ছেলে রাজমিস্ত্রি ওমর ফারুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য