লালমনিরহাটে শাাশুড়িকে নিয়ে পালালো জামাই

রংপুর বিভাগ

‘স্ত্রীকে মারধর করে শাশুড়িকে নিয়ে পালিয়েছে জামাই’ এমন অভিযোগ তুলে গতকাল লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন নাছির উদ্দিন নামে এক ব্যক্তি। শ্বশুর নাছির উদ্দিন নামে ওই ব্যক্তি পাশ্ববর্তী নীলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলার উত্তর সোনাখুলি এলাকার বাসিন্দা। জামাই এমদাদুল (এনদা) একই গ্রামের তরিফ উদ্দিনের পুত্র। তবে ওই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন জামাই এমদাদুল ।

নাছির উদ্দিনের অভিযোগ, গত ২২ জানুয়ারী লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার সিঙ্গিমারী ইউনিয়নের ধুবনী গ্রামে এক আত্মীয়ের বাড়িতে অবস্থানরত তার স্ত্রী আহিতন নেছাকে নিয়ে পালিয়ে যায় মেয়ে জামাই এমদাদুল। এমদাদুলের স্ত্রী নাজলী বেগমের অভিযোগ, তার মায়ের সাথে তার স্বামীর অবৈধ সর্ম্পক। ওই সর্ম্পকের প্রতিবাদ করায় তাকেও মারধর করা হয়েছে। এ ঘটনায় গতকাল ফেব্রুয়ারী হাতীবান্ধা থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে বলে জানান তারা।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে জামাই এমদাদুল বলেন, তার স্ত্রী অনেকের সাথে ফোনে কথা বলেন। এনিয়ে একাধিকবার গ্রাম্য সালিশ হয়েছে। আমার শাশুড়ি আমার পক্ষে কথা বলায় তারা বাপ-বেটি মিথ্যা অপবাদ দিচ্ছে। আমি কোথাও আমার শাশুড়িকে নিয়ে যাই নাই। আমি বড়খাতা বাজারে নিয়মিত দোকান করছি। আমিও এসবের প্রতিকার চেয়ে থানায় একটি অভিযোগ করেছি।

হাতীবান্ধা থানার ওসি এরশাদুল আলম জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য