দিনাজপুর বিরামপুরে চেয়ারম্যানের চেয়ার পোড়ানো ঘটনায় মামলা

দিনাজপুর

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ ভাতার কার্ড নিয়ে দ্বদ্বের জেরে দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার ২নং কাটলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের বসার চেয়ার পোড়ানোর ঘটনায় অভিযুক্ত ইউপি সদস্য সিরাজুল ইসলামের নামে চেয়ারম্যান নাজির হোসেন নিজে বাদি হয়ে মামলা করা করেছেন। একই ঘটনায় রবিবার দুপুরে ওই ইউনিয়নের পরিষদের সচিব ইলিয়াস আলী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

মামলা এজাহার সুত্রে জানা যায়,শনিবার সকালে ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সিরাজুল ইসলাম কাটলা বাজারে ইউনিয়নে পুরাতন ভবনে প্রবেশ করে চেয়ারম্যানের বসার চেয়ারসহ রেজুলেশন খাতা এবং আরও গুরুতপূর্ণ কাগজ নিয়ে বাজারের গোডাউন মোড়ে পেট্রোল দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়।এছাড়াও লাঠি দিয়ে চেবিলের কাঁচ ভেঙে ফেলে।এবং চেয়ারম্যানকে প্রাণ নাশের হুমকি দেয়। এঘটনায় রবিবার রাতেই থানায় ইউপি চেয়ারম্যান বাদি হয়ে গুরুতপূর্ণ কাগজে পেট্রোল দিয়ে আগুন দেওয়ার অভিযোগে সিরাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

পরিষদের সচিব ইলিয়াস আলী বলেন,আমি ওই সময় আমার নিজ বাড়ি বিরলে অবস্থান করছিলাম। মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জানতে পারি ইউপি সদস্য রেজুলেশন বহিসহ বেশ কিছু কাগজ,চেয়ারম্যানের বসার চেয়ার পুড়িয়ে দিয়েছেন। পওে শনিবার রাতেই পরিষদের ফিরে আসি। আজ রবিবার দুপুরে গুরুতপূর্ণ কাগজ বিনষ্ঠ করার দায়ে থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছি।
চেয়ারম্যান নাজির হোসের বলেন,সরকারি সম্পদ পেট্রোল দিয়ে আগুন দেওয়ার কারনে তার নামে থানায় মামলা দায়ের করেছি। এ ছাড়াও তিনি আমাকে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে আসছিলেন।এখন আইনের মাধ্যমে বিচার হবে।

বিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মনিরুজ্জামান মনির বলেন,চেয়ার পোড়ানোর ঘটনায় চেয়ারম্যান নাজির হোসেন বাদি হয়ে রাতেই পরিষদের সদস্য সিরাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য