সৈয়দপুরে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে স্কুল শিক্ষিকার আত্মহত্যার চেষ্টা

রংপুর বিভাগ

মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) সংবাদদাতাঃ “আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়”- ফেসবুকে এমন স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছিল এক স্কুল শিক্ষিকা। একজন অনলাইন এক্টিভেস্ট এর তড়িৎ উদ্যোগে এ সংবাদ পৌছে যায় পুলিশের কাছে। দ্রুত ব্যবস্থা নিয়ে পুলিশ তাকে স্বামীর বাড়ি থেকে উদ্ধার করলে বেঁচে যায় তার জীবন। ঘটনাটি ঘটেছে ৩১ জানুয়ারী দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টায় নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরের মুন্সিপাড়া এলাকায়।

দুই সন্তানের জননী ওই স্কুল শিক্ষিকার স্বামী শহরের একজন মোটর সাইকেল ব্যবসায়ী। সৈয়দপুর উপজেলার কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নের হাজারীহাট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ওই শিক্ষিকা পারিবারিক কলহের কারণে এমন ঘটনার চেষ্টা করেছে বলে জানা যায়।

তিনি তার ফেসবুকে সন্ধার দিকে ওই স্ট্যাটাস দিলে বিষয়টি সৈয়দপুরের অনলাইন এক্টিভেস্ট ও স্ক্রিপ্ট রাইটার তামিম রহমানের দৃষ্টিতে আসলে তিনি তাৎক্ষনিক প্রথম আলোর সৈয়দপুর প্রতিনিধি এম আর আলম ঝন্টু’র সহযোগিতা নিয়ে ওই নারীর আইডি থেকে পরিচয় সনাক্ত করেন। পরে সে অনুযায়ী থানায় জানানো হলে পুলিশ ব্যাবস্থা নেয় এবং স্কুল শিক্ষিকাকে আত্মহত্যার হাত থেকে রক্ষা করে।

সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল হাসনাত খান জানান, বিষয়টি জানা মাত্রই এসআই সাইদুর রহমানকে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে পাঠিয়ে স্কুল শিক্ষিকাকে স্বামীর বাড়ির একটি পরিত্যক্ত ঘর থেকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। পরে কাউন্সিলিংয়ের মাধ্যমে তাকে পরিবারের জিম্মায় রাখা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য