দিনাজপুরে মহিলা পরিষদের স্মারকলিপি

দিনাজপুর

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ নারী ও কন্যার প্রতি যৌন সহিংসতার ঘটনার দ্রুত বিচারপুর্বক ধর্ষকের শাস্তি নিশ্চিত করার দাবীতে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার উদ্যোগে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। জেলা প্রশাসকের পক্ষে স্মারকলিপি গ্রহণ করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. শরিফুল ইসলাম এবং পুলিশ সুপারের পক্ষে স্মারকলিপি গ্রহণ করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. মমিনুল করিম।

২৮ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার নারী ও কন্যার প্রতি যৌন সহিংসতার ঘটনার দ্রুত বিচারপুর্বক ধর্ষকের শাস্তি নিশ্চিত করার দাবীতে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার উদ্যোগে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার বরাবর স্মারকলিপিতে বলা হয় আমরা দীর্ঘদিন ধরে লক্ষ্য করছি যে, ঘরে-বাইরে বিভিন্ন কর্মে নিয়োজিত নারী ও কন্যারা অব্যাহতভাবে ধর্ষণ, দলবদ্ধ ধর্ষণ ও ধর্ষণের পর হত্যা এবং যৌন নিপীড়নের মতো সহিংসতার শিকার হচ্ছে। একশ্রেণীর দুর্বৃত্ত, দূর্নীতিপরায়ন, স্বার্থান্বেষী অপরাধীচক্র, সাম্প্রদায়িক ও উগ্র মৌলবাদী গোষ্ঠীর কাছে সমাজ জিম্মি হয়ে পড়ছে। বিশেষ করে নারী, শিশু, সংখ্যালঘু, আদিবাসী, সুবিধাবঞ্চিত প্রান্তিক জনগোষ্ঠী; যা আমাদের মূল্যবোধ, নৈতিকবতা ও মানবিকতায় আঘাত হানে। নারীর প্রতি সহিংসতা সমাজকে কলুষিত করছে, শিশু, কিশোর, তরুনদের একাংশ অপরাধের সঙ্গে সম্পৃক্ত হচ্ছে, প্রযুক্তির ক্ষেত্রে অনলাইন মিডিয়া এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের অপব্যবহার করছে। বহুলাংশে সমাজের উদাসিনতায় বে-আইনী সালিশের মাধ্যমে মিটমাটের ঘটনা ঘটছে, ধর্ষকের সাথে বিয়ের ঘটনা ধর্ষণের মতো অপরাধের গুরুত্ব লঘু করে সমাজে অন্য বার্তা পৌছে দিচ্ছে।

ঘরের ভেতরেও শিক্ষার্থী, কিশোরী ও নারীরা বখাটেদের দ্বারা সহিংসতার শিকার হচ্ছে। যা দেশের সার্বিক অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করার পাশাপাশি আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতিকে প্রশ্নবিদ্ধ করছে। নারী ও কন্যার প্রতি নৃশংস নির্যাতনের ঘটনার বিচার প্রক্রিয়ায় দীর্ঘসূত্রিতা, বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণে অপরাধ সংগঠনকারীরা বেপরোয়া এবং তারা ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে যাচ্ছে।

সাম্প্রতিক সময়ে সারাদেশের বিভিন্ন স্থানে সংঘটিত ধর্ষণ, দলবদ্ধ ধর্ষণসহ যৌন সহিংসতার ঘটনায় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত সাপেক্ষে ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার, দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির লক্ষ্যে যথাযথ ব্যবস্থাগ্রহণ এবং ঘটনার শিকার নারী ও কন্যা এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের অনুরোধ জানাচ্ছে। নারীর প্রতি এ ধরনের সহিংসতা ও নির্মম নির্যাতনের ঘটনা দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে নিষ্পত্তি করাসহ ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানাচ্ছে।

এই অবস্থা থেকে উত্তরনের লক্ষ্যে উদ্বেগজনকভাবে বেড়ে যাওয়া ধর্ষণ, ও ধর্ষণের পর হত্যা এবং যৌন নিপীড়ণের ঘটনায় শূন্য সহিষ্ণুতায় নীতি গ্রহণসহ দ্রুত বিচার সাপেক্ষে ন্যায়বিচার নিশ্চিতকরণের আশু কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণেরও অনুরোধ জানাচ্ছে।

স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সহ-সভাপতি মাহবুবা খাতুন, সাধারণ সম্পাদক ড. মারুফা বেগম, আন্দোলন সম্পাদক গৌরী চক্রবর্তী, সদস্য শুকলা কুন্ডু, প্রোগ্রাম এক্সিকিউটিভ নীপা শেঠ, অফিস সহকারী মিনা দাস প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য