দিনাজপুর ফুলবাড়ীতে মারধর ও লাঞ্ছিত মুক্তিযোদ্ধার হাসাপাতালে শয্যাসায়ী অবস্থায় সংবাদ সম্মেলন

দিনাজপুর

সংবাদ সম্মেলনঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে আদালতের রায় বাস্তবায়নকে কেন্দ্র করে বীরমুক্তিযোদ্ধাকে মারধর ও নর্দমায় চুবিয়ে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।

জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বীরমুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক সেনা সদস্য বদিউজ্জামান বুদুমিয়া (৭০) কে জমির অবৈধ দখলকারীরা জনসম্মুখে লাঞ্ছিত করেন বলে অভিযোগ করা হয়।

বুধবার (২৭জানুয়ারি) দুপুর ১টাকা ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিৎসাধীনয় শয্যাসায়ী আবস্থায় মুক্তিযোদ্ধার এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন লাঞ্ছনার শিকার মুক্তিযোদ্ধা বদিউজ্জামান বুদুমিয়া।

লিখিত বক্তব্যে ভুক্তভোগী মুক্তিযোদ্ধা বলেন, উপজেলার দক্ষিণ বাসুদেবপুর মৌজাধীন সিএস ১৩৫ (এসএ ১৪৯) খতিয়ানভুক্ত ১৩৪, ১৩৫ ও ১৩৮ দাগে সর্বোমোট ১একর ৮শতক জমি যা দীর্ঘদিন প্রভাবশালীরা অবৈধ ভাবে দখল করে আসছে। ১৭ বছর ধরে মামলা চলার পর দিনাজপুর জজ আদালত মামলা নং ০৯/২০১৯ অন্য ডিং মামলায় আমার পক্ষে রায় প্রদান করে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে জমি দখল বুঝিয়ে দিতে আদেশ প্রদান করেন।

উক্ত আদেশ বাস্তবায়নে দিনাজপুর জেলা নাজির মোঃ শাহ আলম তার ৩/৪জন জারিকারকসহ ফুলবাড়ী থানা পুলিশের সহায়তায় (২৬জানুয়ারি) মঙ্গলবার দুপুর ১২ টার সময় অবৈধ দখলকৃত জমি উদ্ধার করতে যান। এ সময় অবৈধ দখলদার মৃত আলেফ উদ্দিনের ছেলে মোঃ আজিবর রহমান (৫৫), মৃত শাহজাহানের ছেলে মোঃ ফারুক হোসেন (৫০) সহ অজ্ঞত আরও ১০/১২ জন লাঠিসোটা ও লোহার রড নিয়ে হামলা চালায় । তারা আমাকে মারধর ও নর্দমায় চুবিয়ে লাঞ্ছিত করে। এ সময় পুলিশ আমাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

ক্ষুব্ধ মুক্তিযোদ্ধা ঐ দিন বিকেল সাড়ে ৩ টায় আহত শরীরে থানায় উপস্থিত হয়ে ভূমি দখলকারী মোঃ আজিবর রহমান ও মোঃ ফারুক হোসেনসহ অজ্ঞত ১০/১২জনকে আসামী করে ফুলবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লাঞ্ছিত ও মারধরের উপযুক্ত বিচারের দাবি জানান তিনি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন লাঞ্ছিতের শিকার মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী আছিরন বিবি, জ্যৈষ্ঠ ছেলে আজিজ আহমেদ, ছেলে রাজু আহমেদ, মেয়ে বেলী আক্তার।

এ বিষয়ে ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফখরুল ইসলাম মুঠোফোনে বলেন,মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। তাই বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে নাম উল্লেখিত দুই আসামীকে ঘটনার রাতেই গ্রেফতার করে পরদিন (বুধবার) সকালে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য