রাণীশংকৈল পৌরসভা নির্বাচনে প্রতিক বরাদ্দ প্রচারে নেমেছে প্রার্থীরা

রংপুর বিভাগ

আনোয়ার হোসেন আকাশ, রাণীশংকৈল থেকেঃ ঠাকুরগাঁও রাণীশংকৈল পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থীদের মাঝে নিবার্চনী প্রতিক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। বুধবার উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে পৌরসভা নির্বাচন রিটানিং কর্মকর্তা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল সুলতান জুলকার নাইন সকল প্রার্থীদের উপস্থিতিতে প্রতিক বরাদ্দ দেন। এসময় উপজেলা নির্বাচন অফিসার আখিঁ সরকারসহ সংশ্লিষ্ট সকল্ইে উপস্থিত ছিলেন। এ পৌরসভা নির্বাচনে সব পদের প্রার্থী মিলে মোট প্রার্থীর সংখ্যা-৫২ জন।

এ সময় ১২ জন মেয়র পদের মধ্যে আ’লীগ মনোনীত মোস্তাফিজুর রহমানকে “নৌকা” স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মধ্যে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও বর্তমান মেয়র আলমগীর সরকারকে “ক্যারাম বোর্ড” পৌর আ’লীগের সম্পাদক রফিউল ইসলাম “কম্পিউটার” উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি নওরোজ কাউসার গাম্বী ওরফে কানন “চামুচ” উপজেলা যুবলীগের অর্থ সম্পাদক আব্দুল খালেক “জগ” পৌর আ’লীগের সদস্য ও উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধন বসাক “নারিকেল গাছ” ইসতেগার আলী “মোবাইল ফোন” রুকুনুল ইসলাম ডলার “রেল ইঞ্জিন”। বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মাহমুদুন নবী পান্না বিশ্বাস “ধানের শীষ” স্বতন্ত্র প্রার্থী পৌর বিএনপির সদস্য মোখলেসুর রহমান “হ্যাঙ্গার” জাতীয় পার্টি মনোনীত আলমগীর হোসেন “লাঙ্গল” ।

এছাড়াও স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক ছাত্রনেতা মোকাররম হোসাইন “ ইস্ত্রি” প্রতিক বরাদ্দ পেয়েছেন। এদিকে পৌরসভার ৯টি সাধারণ ওর্য়াডে মোট ৩৩ জন ও তিনটি সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে মোট ১৩ জন প্রার্থীর মাঝেও প্রতিক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। অপরদিকে প্রতিক বরাদ্দ পাওয়ার পর পরই প্রচারে নেমেছে প্রার্থীরা। মেয়র প্রার্থী আলমগীর সরকারের সমর্থকরা তাৎক্ষনিক একটি নির্বাচনী মিছিল বের করে পৌর শহরের বিভিন্ন স্থান প্রদক্ষিণ করে। এছাড়াও অন্যানা প্রার্থীদের মাইকে প্রচার বের হয়েছে। নৌকা, ধানের শীষের প্রার্থীর পোষ্টার সাটানো শুরু হয়ে গেছে।

কাউন্সিলর পদে পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে মাইদুল ইসলাম- টেবিল ল্যাম্প, নুর আলম-উটপাখি, জিযাউর রহমান-ডালিম, আব্দুল গফফার-গাজর , আসাদুজ্জামান-ডালিম, জুয়েল রানা -টেবিল ল্যাম্প, শেফাউল আলম শেফা-উটপাখি, মুনসুর -টেবিল ল্যাম্প, এনামুল -ডালিম, ইসাহাক হোসেন- উটপাখি, মতিউর রহমান-উটপাখি, মুক্তারুল হোসেন-টেবিল ল্যাম্প, শহিদুল-পাঞ্জাবি, মোকসেদ- ডালিম, নজরুল ইসলাম -পাঞ্জাবি, আবু তালেব-উটপাখি, সানোয়ার-পাঞ্জাবি, আক্তারুল-টেবিল ল্যাম্প, আবু সাঈদ-ডালিম, আব্দুর রাজ্জাক-পানির বোতল, নুর ইসলাম -উটপাখি, আমানুল্লাহ-ডালিম, সাদেকুল-পাঞ্জাবি, রুহুল আমিন-উটপাখি, এ বি এম হামিদুর রহমান খান-টেবিল ল্যাম্প, খাইরুল কবির- উটপাখি, শরিফুল ইসলাম- টেবিল ল্যাম্প, ইউসুফ আলী- পাঞ্জাবি, তোফাজ্জল হোসেন -ডালিম, মিঠুন রানা- উটপাখি, মোকসেদ -ডালিম, আব্দুল হাকিম- পাঞ্জাবি প্রতিক বরাদ্দ পেয়েছেন।

সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর ৩টি পদে, হালিমা আক্তার ডলি-আনারস, শ্রী বনিতা রানী সরকার-অটোরিকশা, মনোয়ারা বেগম-চশমা, মুক্তি রানী বসাক- টেলিফোন,মরিয়ম- অটোরিকশা, শামসুন নিহার-জবা ফুল, আমেনা -আনারস, শিউলি বেগম-জবা ফুল, নাজমা বেগম -চশমা, শ্রীমতি আদরী-আংটি, আনসারা বেগম -আনারস, জুলেখা-টেবিল ল্যাম্প, কামরুন নেছা -চশমা প্রতিক বরাদ্দ পেয়েছেন ।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার আখিঁ সরকার জানান, উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে প্রতিক বরাদ্দ দিয়ে ভোটের মাঠে প্রচারের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। প্রতিক বরাদ্দ দেওয়ার সময় আমরা সব পদের প্রার্থীদের নির্বাচনী আচরণ-বিধি মেনে চলার আহবান জানিয়েছি। এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, এ যাবত পর্যন্ত নির্বাচনী পরিবেশ অনেক ভাল। এখানকার প্রার্থীরা একে অপরের প্রতি আন্তরিক,সে জায়গা থেকে আমরা মনে করি ভোট আগামী ১৪ ফ্রেবুয়ারী অত্যন্ত সুষ্ঠ ও সুন্দর হবে। পৌরসভায় ভোটের সংখ্যা পুরুষ ৭ হাজার ২শত ৮৬ নারী ভোটার ৭ হাজার ২শত ৮৬ জন সর্বমোট ভোটার ১৪ হাজার ৬শত ২৪ জন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য