গাইবান্ধায় অটোভ্যান চালক হামিদুল হত্যাকান্ডের ঘটনায় গ্রেফতার ৩

রংপুর বিভাগ

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে অটোভ্যান চালক হামিদুল হত্যার প্রধান আসামী সাইদুর রহমানসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বুধবার (২৭ জানুয়ারী) সকালে জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বেলাকা বাজার এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে র‌্যাব-১৩ গাইবান্ধা। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ছিনতাই হওয়া অটোভ্যানটিও উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার রাখাল মাদারদহ গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে সাইদুর রহমান, সুন্দরগঞ্জ উপজেলার মৃত গোলে হেসেনের ছেলে সাইফুল ইসলাম ও মৃত আশরাফ বেপারীর ছেলে হাসিফুল।

র‌্যাব-১৩ গাইবান্ধার কোম্পানী অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানিয়েছেন এসময় আসামীদের সাথে আরও সহযোগী আছে কিনা তা তদন্ত সাপেক্ষে জানা যাবে বলেও উল্লেখ করেন কোম্পানি অধিনায়ক।

এদিকে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের অটোভ্যান চালক হামিদুল ইসলাম হত্যার প্রতিবাদ ও অবিলম্বে হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবীতে মহিমাগঞ্জে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (২৭ জানুয়ারী) সকাল ১০টায় গোবিন্দগঞ্জ-মহিমাগঞ্জ সড়কের মহিমাগঞ্জ সোনারপাড়া চারমাথায় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, মহিমাগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রুবেল আমিন শিমুল, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি এমএ মতিন মোল্লা, মহিমাগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মুন্সী রেজওয়ানুর রহমান, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক খন্দকার হামিদুল ইসলাম, শ্রমিক নেতা উপাধ্যক্ষ জহুরুল ইসলাম, গোলাম কাদির মিঠু প্রমূখ। এর আগে অটোভ্যান চালকরা গাড়ি বন্ধ রেখে এখানকার প্রধান প্রধান সড়কে বিক্ষোভ মিছিল করেন।

উল্লেখ্য; গত রোববার রাতে ব্যাটারীচালিত অটোভ্যান নিয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে নিখোঁজ হন অটোভ্যান চালক উপজেলার মহিমাগঞ্জ ইউনিয়নের পুনতাইড় শিংজানী গ্রামের মৃত মজিবর রহমানের ছেলে হামিদুল ইসলাম (৩৬)। পরদিন সোমবার দুপুর ৩টার দিকে উপজেলার রাখালবুরুজ ইউনিয়নের মিয়াপাড়ার একটি পুকুরের কচুরীপানার নিচ থেকে বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য