HILI PORT CLOSE NEWS -24-04-14দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু করেছে ৫টি সংগঠন। এগুলো হচ্ছে বন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক, সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশন, সম্মিলিত ট্রাক বন্দোবস্তকারী ও ট্রাক মলিক সমিতি। এতে অচল হয়ে পড়েছে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তর এ স্থলবন্দরের কার্যক্রম। সীমান্তের জিরো পয়েন্টে আমাদানিকৃত পণ্যের ম্যানুফিস্টে বিজিবির সিল মারা, ব্যবসায়ীদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ ও হয়রানির প্রতিবাদে এ কর্মসূচি গ্রহণ করে ব্যবসায়ীরা। এতে একাত্বতা ঘোষণা করে ধর্মঘটে যোগ দিয়েছে সম্মিলিত ট্রাক বন্দোবস্তকারী ও ট্রাক মলিক সমিতিসহ বন্দর সংশ্লিষ্ট ৫টি সংগঠন। এর আগে শনিবার এসব সংগঠনের পক্ষে হিলি কাস্টম্স সি অ্যান্ড এফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েসনের সাধারণ সম্পদক আব্দুর রহমান লিটন দিনাজপুর-৬ আসনের এমপি বরাবর এক স্বারকলিপি প্রদান করে। স্বারকলিপির অনুলিপি কমিশনার, কাস্টম্্স এক্সাসাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট রংপুর, বিজিবি, সেক্টর কোমান্ডার দিনাজপুরসহ প্রসাশনের বিভিন্ন দপ্তরে পাঠানো হয়েছে। তাদের দাবি মানতে রোববার পর্যন্ত সময় দেয়া হয়েছিল। সোমবার বেলা ১২টা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত এক ঘণ্টা এবং মঙ্গলবার বেলা ১২টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত দু’ঘণ্টা ধর্মঘট পালন করে তারা। দাবি না মানায় বুধবার থেকে তারা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু করে। অপরদিকে সাংবাদিকদের সঙ্গে এ বিষয়ে মতবিনিময়ের সময় ৩ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আব্দুর রাজ্জাক তরফদার বলেন, আমদানিকৃত যেসব পণ্য বাংলাদেশে প্রবেশ করছে সীমান্তের জিরো লাইনে সেটা দেখার অধিকার বিজিবিরও রয়েছে বলে জানান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য