দিনাজপুর সংবাদাতাঃ নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোমপানী নেসকো লিঃ এ কর্মরত দিনাজপুর অঞ্চলের সকল অস্থায়ী মিটার পাঠক ও বিল বিতরনকারী (পিচরেট) কর্মচারীদেরকে এমডি কর্তৃক দেওয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন না হওয়ায় অনির্দিষ্ট কালের জন্য কর্মবিরতি শান্তিপূর্ন অবস্থান কর্মসূচী পালিত হয়েছে।

শনিবার ২৩ জানুয়ারি দুপুর ১২ টায় থেকে বিকাল ৬টা পর্যন্ত দিনাজপুর সদর উপজেলা পিডিবির মোড়ে দিনাজপুর নেসকো লিমিটেড প্রধান কার্যালয়ে অফিস চত্বরে দিনাজপুর অঞ্চলে কর্মরত সকল অস্থায়ী মিটার পাঠক ও বিল বিতরনকারী (পিচরেট) কর্মচারীর ঐক্য পরিষদ তাদের চাকুরী স্থায়ীকরনের জন্য এমডি কর্তৃক দেওয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন না হওয়ায় কেন্দ্রিয় কমিটির সিদ্ধান্ত মতে অনির্দিষ্ট কালের জন্য কর্মবিরতি পালন করছে। এই জন্য সারাদিনব্যাপী অবস্থান কর্মসূচীর মধ্যে আলোচনা সভা, বক্তৃতা ও দাবী-দাওয়া নিয়ে স্লোগানে মুখরিত ছিল।

এই বিষয়ে পিচরেট কর্মচারী ঐক্য পরিষদ, আঞ্চলিক কমিটি, বিতরন জোন, নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোমপানী নেসকো লিঃ বৃহত্তর দিনাজপুর এর সভাপতি মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, আমাদের দাবীর লক্ষ্য উদ্দেশ্য একটাই চাকুরী স্থায়ীকরন। আমরা অনেকবার বিভিন্ন জায়গায় সমাবেশ করছি শুধু চাকুরী স্থায়ীকরনের জন্য এটা আমাদের প্রাণের দাবী। আমাদের দাবী-দাওয়া পুরনের ক্ষেত্রে এমডি মহোদয় যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে তা বাস্তবায়ন না করে সময় কালক্ষেপন করছে। সিস্টেম লস থেকে শুরু করে যাবতীয় সমস্যার সমাধান আমাদেরকে দিতে হয়, অথচ আমরা আজ অনিশ্চয়তার মধ্যে দিন কাটাচ্ছি। মুজিব শত বর্ষ উৎযাপনের সঙ্গে আমাদের চাকুরী স্থায়ীকরনরে বিষয়টি মানবিক দৃষ্টিতে বিবেচনা করার এবং প্রতিশ্রুতি পুরন করে সার্বিক সহযোগীতার অনুরোধ জানান।

আর বক্তৃতা রাখেন, পিচরেট কর্মচারী ঐক্য পরিষদ, আঞ্চলিক কমিটি, বিতরন জোন, নেসকো লিঃ, দিনাজপুর এর সহ-সভাপতি মোঃ সোয়েব হাসান বিপ্লব এবং সাধারন সম্পাদক মৃদুল কুমার সাহা, দিনাজপুর অঞ্চলের মধ্যে ফুলবাড়ী উপজেলার পিচরেট কর্মচারী ঐক্য পরিষদের সভাপতি হারুনুর রশিদ, সাধারন সম্পাদক ফয়সাল হোসেন, সেতাবগঞ্জ উপজেলার সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন ও পার্বতীপুর উপজেলার সাধারন সম্পাদক ইসমাইল হোসেন রিপন।

সংশ্লিষ্টরা আরও জানান, দিনাজপুর বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ এবং বিদ্যুৎ সরবরাহ দপ্তরে দু-দীর্ঘ ১৫ হতে ২০ বছর যাবত অস্থায়ী (পিচরেট) ভিত্তিতে মিটার পাঠক ও বিল বিতরণকারী হিসাবে কর্মরত আছেন। নেসকো লিঃ তাদের চাকুরি বিভিন্ন পদের বিপরীতে স্থায়ীকরন না করে বর্তমানে নতুনভাবে নিয়োগ বানিজ্য চলছে তা আমাদেরকে অনিশ্চয়তার দিকে ঠেলে দিয়েছে।

এই জন্য তারা চাকুরী স্থায়ীকরনের লক্ষ্যে ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ (এমডি) উর্দ্ধতন মহলকে ৩০/০১/২০২০ ইং তারিখে স্মারকলিপি প্রদান করেছিল। গত ১০/০২/২০২০ ইং তারিখে মানব বন্ধনসহ বিভোক্ষ কর্মসূচী পালন করে এবং পরবর্তিতে বিভিন্ন গনমাধ্যম ও প্রিন্ট মিডিয়ার মাধ্যমে চাকুরী স্থায়ীকরনের জন্য নেসকোর উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে ১৫ দিনের সময় বেধেঁ দেওয়ার হয়েছিল নেসকো লিঃ এর কর্তৃপক্ষ কোন পদক্ষেপ গ্রহন করে নাই। গত ২৭/১০/২০২০ ইং তাং হতে ০৩/১১/২০২০ ইং পর্যন্ত টানা সাত দিন নেসকোর প্রধান কার্যাালয়ের সামনে প্রায় সাতশত অস্থায়ী (পিচরেট) কর্মচারীর সমন্বয়ে ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রিয় ব্যানারে আবস্থান কর্মসূচীসহ শাান্তিপূর্ণভাবে দুর্বার আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে ছিল।

পরবর্তীতে ০৩/১১/২০২০ ইং তারিখেই প্রধান প্রকৌশলীর সমন্বয়ে এমডি সহ উর্দ্ধতন কর্র্তৃপক্ষের সাথে নেসকোর কনফারেন্স রুমে আলোচনায় বসে ছিল। এমডি আলোচনার সিদ্ধান্ত মোতাবেক পিচরেট পদ্ধতি বাতিল করে আর এফ কিউ পদ্ধতিতে পিচরেট কর্মচারীকে চাকুরী দেওয়া হবে সেই সাথে তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেনীর পদে স্মার্ট বেতন ও উৎসব বোনাস সহ ব্যাংকের মাধ্যমে প্রদান করা হবে এবং কারো কর্ম হারাবে না এই মর্মে নিশ্চয়তা প্রদান করেন যাহা অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে কার্যকর হবে। কিন্তু নেসকো কোং লিমিেেটডের এমডি প্রতিশ্রুতির দুই মাস অতিবাহিত হওয়ার পরে সকল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেও প্রতিশ্রুতির পক্ষে আশানুরুপ কোন সিদ্ধান্ত গ্রহনের পদক্ষেপ পরিলক্ষিত হয় নাই।

আবারো ৪/০১/২০২১ ইং তারিখে ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) কর্তৃক চাকুরী দেওয়ার প্রতিশ্রুতি পূর্ণ বাস্তবায়িত করার জন্য ১৬/০১/২০২১ ইং তারিখ পর্যন্ত পুনরায় করজোড়ে অনুরোধ জানান। বেঁধে দেওয়ার সময়ের মধ্যে কর্তৃপক্ষ কর্মচারীর সঙ্গে কোন প্রকার আলোচনা বা চাকুরীর বিষয়ে দেওয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়িত না করায় গত ২৩/০১/২০২১ ইং তারিখ শনিবার হতে কেন্দ্রিয় কমিটির সিদ্ধান্ত মতে নেসকো কোং লিঃ (রংপুর ও রাজশাহী জোন) পিচরেট কর্মচারী ঐক্য পরিষদ অনির্দিষ্ট কালের জন্য কর্মবিরতি কর্মসূচী শুরু করেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য