সংবাদ সম্মেলনঃ দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলায় একেরপর এক মিথ্যে মামলায় হেরে যাবার পর এবার মিথ্যে হত্যা মামলা দায়েরের প্রতিবাদে সেতাবগঞ্জ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগী মোঃ আলেক বেপারী (সোহাগ)।

উক্ত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সেতাবগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী মোঃ আলেক বেপারী (সোহাগ), পিতা মৃত হানিফ বেপারী সাং- মুশিদহাট (শহীদপাড়া), পোঃ সেতাবগঞ্জ, উপজেলা- বোচাগঞ্জ, জেলা- দিনাজপুর লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমার পৈত্রিক সম্পত্তি নিয়ে একই এলাকার জনৈক মোঃ আবুল ফজল পিতা-মৃত আব্দুল মজিদ এর সাথে দীর্ঘদিন ধরে আদালতে মামলা চলে আসছে। ইতিমধ্যে তারই জের ধরে গত ৪ জানুয়ারী-২০২১ তার পুত্র নজরুল ইসলাম (নাজির) দিনাজপুর জেল হাজতে মৃত্যু বরন করলে গত ১৩ জানুয়ারী-২০২১ ইং তারিখে উক্ত আবুল ফজল সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালত-৩ বোচাগঞ্জ এ আমার নাম সহ ৫ জনকে আসামী করে একটি হয়রারী মূলক মিথ্যা ভিত্তিহীন ও বানোয়াট হত্যা মামলা দায়ের করেন। যার কোন ভিত্তি নেই। মূলত আবুল ফজল ও তার স্ত্রী নামজা আক্তার বিগত ২০১৬ ইং সাল থেকে আমার পৈত্রিক সম্পত্তি দখল নেয়াকে কেন্দ্র করে আমি সহ আমার পরিবারের নামে পর পর ৩টি মিথ্যা মামলা করেছে। ইতিমধ্যে বিজ্ঞ আদালত আমাকে ২টি মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন। মামলায় হেরে গিয়ে আবুল ফজল তার ছেলের মুত্যুর দায় আমার উপর চাপিয়ে দেয়ার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে মোঃ আলেক বেপারী (সোহাগ) আরো বলেন, মৃত নজরুল ইসলাম (নাজির হোসেন) একজন কুখ্যাত চোর ও নেশাখোর। তার নামে বোচাগঞ্জ সহ বিভিন্ন থানায় ১৭টি মামলা রয়েছে। সে কোথায় কিভাবে চুরি করতে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়ে তার বিষয় আমি কিছুই জানি না। মূলত আমার পৈত্রিক সম্পত্তি আত্মসাৎ করার জন্যই আবুল ফজল আমার নামে একের পর এক মিথ্যা মামলা দায়ের করে চলছে। আমি সেতাবগঞ্জ পৌরসভাধীন বাজারে সুনামের সাথে ব্যবসা করে আসছি। আমার সুনাম ক্ষুন্ন ও পৈত্রিক সম্পত্তি দখল নিতে আবুল ফজল এই হীন চেষ্ঠায় লিপ্ত রহিয়াছে। আমি এর সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে আবুল ফজলের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবী করছি। সেই সাথে আমার নামে করা মিথ্যা হত্যা মামলা প্রত্যাহারের জন্য প্রশাসনের কাছে জোর দাবী জানাচ্ছি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য