দিনাজপুরের হাকিমপুরে এক ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে এনামুল হক (২৬) নামের এক মাদ্রাসাশিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার (১৬ জানুয়ারি) দুপুরে হিলির ছাতনি চারমাথার মারফুযুল উলুম আল ইসলামীয়া নামের মাদ্রাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত এনামুল হক হাকিমপুর থানার তিতশ্বর গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, হিলির ছাতনি চারমাথার মারফুযুল উলুম আল ইসলামীয়া নামের মাদ্রাসায় শনিবার অন্য বান্ধবীদের সঙ্গে পড়তে আসে ওই ছাত্রী। এসময় এনামুল হক নামের ওই মাদ্রাসার শিক্ষক ভুক্তভোগী ছাত্রীকে বসতে বলে অন্য ছাত্রীদের বাইরে থেকে ঘুরে আসতে বলে। অন্য শিক্ষার্থীরা চলে গেলে ওই শিক্ষক ছাত্রীকে এক পেয়ে যৌন নিপীড়নের চেষ্টা চালায়। এ সময় ভুক্তভোগী ছাত্রী চিৎকার করলে অন্যরা এগিয়ে আসে। এসময় তারা ওই শিক্ষককে মারপিট করতে থাকে।

পরে বাড়িতে গিয়ে ওই ছাত্রী পরিবারের কাছে সব খুলে বলে। এরপর ভুক্তভোগী ছাত্রীর পরিবার থানায় অভিযোগ দেয়।

হাকিমপুর থানার ওসি ফেরদৌস ওয়াহিদ বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, হিলির ছাতনি চারমাথায় একটি মাদ্রাসায় এক ছাত্রীর সঙ্গে যৌন নিপীড়নের ঘটনা ঘটে। স্থানীয় লোকজন বিষয়টি জেনে ওই শিক্ষককে আটকে রাখে। খবর পেয়ে মাদ্রাসা থেকে তাকে আটক করে থানায় আনা হয়। ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য