Fulbariশনিবার সকালে দিনাজপুরের ফুলবাড়ী থানা পুলিশ পৌর এলকার কাঁটাবাড়ী মহল্লায় এক জুয়েলারী ব্যবসায়ীর বাড়ীর সামনে থেকে ১ টি বোমা উদ্ধার করেছে। পুলিশ ধারনা করছে এটি বোমা নয় । বোমা সাদৃশ্য বস্তু ।এলাকায় আতংক সৃষ্টির উদ্যেশে কে বা কাহারা এই বস্তুুটিকে বাড়ীর সামনে রেখে দেওয়া হয়েছিল। অপর দিকে র‌্যাব বলছে এটি রিমোট কন্ট্রোল বোমা হতে পাারে। ফুলবাড়ীর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রবিউল ইসলাম খান জানান, শনিবার সকাল সাড়ে ৭ টায় পৌর এলকার কাটাঁবাড়ী মহল্লায় লক্ষ্মী জুয়েলার্সের মালিক অজিত প্রসাদের বাড়ীর গেটের সামনে তার দিয়ে মোড়ানো বোমা পড়ে আছে। খবর পেয়ে ফুলবাড়ী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছান। ওই সময়ে ফুলবাড়ীর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রবিউল ইসলাম খান সহকারী পুলিশ সুপার (ফুলবাড়ী সার্কেল) সুশান্ত কুমার সহ ঘটনাস্থলে পৌছান এবং দেখেন পুলিশ সেটিকে নিষ্ক্রিয় করতে পানিত বালতিতে রেখেছেন। তিনি আরো জানান, সকালে অজিত প্রসাদের বাড়ীর কাজের মেয়ে ওই বোমা সাদৃশ্য বস্তুুটিকে প্রধান গেটের সামনে থেকে ঝাড়– দিয়ে বাড়ীর পার্শ্বে ময়লা ফেলার জায়গায় ফেলেছেন। পুলিশ বোমাটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পরে র‌্যাব-১৩ কে খবর দেওয়া হয়। ওসি রবিউল ইসলাম খানঁ আরো জানান, এটি বোমা নয় বোমা সাদৃশ্য বস্তুু। এলাকায় আতংক সৃষ্টির উদ্যেশে এমনটি করা হতে পারে। বোমা হলে এবং লিকেজ থাকলে এটি পানির সংর্স্পশে আসলেই বিস্ফোরিত হওয়ার কথা। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে। এব্যাপারে পুলিশ বাদী হয়ে একটি সাধারন ডায়েরী করেছেন বলে তিনি জানান।  খবর পেয়ে র‌্যাব-১৩ দিনাজপুর ক্যাম্প, সিপিসি-১ এর সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার আব্দুল হান্নান ১৫ সদস্যের একটি দল নিয়ে থানায় রয়েছেন। তিনি জানান, এটি দেখে রিমোট কন্ট্রোল বোমা বলে ধারনা করা হচ্ছে। এটি নিস্ক্রিয় করতে নিরাপদ মনে করলে নিষ্ক্রিয় করা হবে, না হলে ধ্বংশ করা হবে। এলকাবাসীর ধারনা কাটাঁবাড়ীর ওই মহল্লাটি সংখ্যালঘু এলকা হওয়ায় তাদের মধ্যে আতংক সৃষ্টির জন্য এমনটি  করা হতে পারে। ঘটনাটি ফুলবাড়ীতে টক অব দা টাউনে পরিনত হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য