দিনাজপুর সংবাদাতাঃ নির্বাচনী প্রচারনা শেষে বাড়ী ফেরার পথে দিনাজপুর পৌরসভার ১২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে একই পদে প্রার্থী আশরাফুল আলম রমজানের উপর দুর্বৃত্তের হামলার ঘটনায় ১২ জনের নাম দিয়ে অজ্ঞাতনা আরো ৬০ জনকে আসামী কওে মামলা দায়ের হয়েছে।

কাউন্সিলর প্রার্থী আশরাফুল আলম রমজান নিজে বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাত ১১ টার সময় এই মামলা দায়ের করেছেন। তিনি দিনাজপুরের এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ডদনাজপুর কোতয়ালী থানার ওসি (তদন্ত) আসাদুজ্জামান আসাদ মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মামলায় ১২ জনের উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়াও অজ্ঞাত আরো ৬০ জনের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য প্রার্থী আশরাফুল আলম রমজান সোমাবার রাতে প্রচারনা শেষে এক কর্মীর বাসায় যায়। সেখান থেকে ফেরত আসার সময় কসবা আলামিয়া মসজিদের পাশে সশস্ত্র অবস্থায় দুর্বৃত্তরা লোহার রড ও হাসুয়া দিয়ে তার উপর হামলা করে। এসময় তাকে রক্ষা করতে আসলে মুন্না নাকে তার এক কর্মীকেও দুর্বৃত্তরা হাসুয়া দিয়ে কোপায়। এসময় তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। হামলাকারীরা মুখে মানকি টুপি ও মাক্স পড়েছিল। পড়ে এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, কাউন্সিলর প্রার্থী আশরাফুল আলম রমজানের বাম হাত ও বাম পা ভেঙ্গে গেছে। এছাড়াও মাথা ও শরীরে বিভিন্ন আঘাত করা হয়েছে। কর্মী মুন্নার মাথায় ১০টি সেলাই ও বাম হাতে ২টা সেলাই পড়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য