লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় বাবা-মায়ের বাড়ির যাতায়াতের রাস্তা বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগে ছেলে রফিকুল ইসলামকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (১৩ জানুয়ারী) দুপুরে হাতীবান্ধা থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ (ওসি) এরশাদুল আলম গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে মঙ্গলবার(১২ জানুয়ারী) গভীর রাতে উপজেলার বড়খাতা ইউনিয়নের পশ্চিম সারডুবী গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করে থানা পুলিশ।

রফিকুল ওই এলাকার আবদুল আজিজ ও সফিয়া বেগম দম্পত্তির ছেলে।

জানা গেছে, রফিকুল ঢাকায় একটি বেসরকারি চাকরি করে প্রতিমাসে বাবা-মায়ের খরচের টাকা পাঠান। সম্প্রতি বাড়ি ফিরে পাঠানো টাকার হিসাব দাবি করলে বাবা-মায়ের সঙ্গে দ্বন্দ্ব হয় তার। একপর্যায়ে পাঠানো টাকা ফেরত চেয়ে বিভিন্ন সময় বাবা-মাকে মারধর করেন তিনি। এ নিয়ে বাবা আবদুল আজিজ স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ ও থানায় লিখিত অভিযোগ করেও প্রতিকার পাননি।

গত ৯ জানুয়ারি টাকা ফেরত চেয়ে আবারও বাবা-মাকে মারধর করেন রফিকুল। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে হাতীবান্ধা হাসপাতালে ভর্তি করেন। চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফিরে আবদুল আজিজ দেখতে পান তাদের চলাচলের রাস্তাটি টিনের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছে রফিকুল।

এ ঘটনায় আইনি সহায়তা চেয়ে গত সোমবার (১০ জানুয়ারি) স্থানীয় থানায় আবারও ছেলের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন বাবা আবদুল আজিজ। অভিযোগটি আমলে নিয়ে তদন্ত করে অভিযোগের সত্যতা পেলে মঙ্গলবার রাতেই অভিযুক্ত ছেলে রফিকুল ইসলামকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

হাতীবান্ধা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এরশাদুল আলম বলেন, বাবা মাকে মারপিট ও তাদের বাড়ির রাস্তা বন্ধ করার অভিযোগে মঙ্গলবার রাতেই ছেলে রফিকুলকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য