দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাশ-পরীক্ষা চালুসহ বিভিন্ন দাবিতে উপাচার্যের বাসভবনের দরজায় বসে অবস্থান কর্মসূচী পালন করছে বিশ^বিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬ টা থেকে এই অবস্থান কর্মসূচী শুরু করে ছাত্রলীদের নেতাকর্মীরা। তাদের দাবি মেনে না নেয়া পর্যন্ত অনড় থাকার ঘোষণা দিয়েছেন তারা। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা জানিয়েছে- বিভিন্ন দাবীতে উপাচার্যের সাথে কথা বলতে আসলেও সকাল ১১ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত উপাচার্য তাদের সাথে দেখা করেননি এবং কথা বলেননি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা জানান, করোনা ভাইরাস আসার আগে থেকেই উপাচার্য ড. মু. আবুল কাসেম তার বাসভবন থেকেবের হননি। বিশ্ববিদ্যালয়ের যাবতীয় কাজ তিনি নিজ বাড়িতে বসেই করেছেন। বিশেষ বিশেষ ক্ষেত্রে ভার্চুয়াল বৈঠক করেছেন। একজন উপাচার্য দীর্ঘদিন ধরে প্রশাসনিক ভবনে না আসায় এবং কার্যক্রম না করায় শিক্ষার্থীদের অনেক সমস্যার মধ্যে পড়তে হচ্ছে। সেমিষ্টার ফি, যানবাহন সংকট, ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার তদন্ত প্রতিবেদনসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলতে চাইলেও উপাচার্য কথা বলছেন না।

তাদের অভিযোগ- ১৫ আগষ্টে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দেননি। প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালন করেননি। অফিসে বসেই খাতা-কাগজ স্বাক্ষর করেন। তিনি কারও ফোন রিসিভ করেন না এবং কথা বলেন না। গত ৪ জানুয়ারী ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে অনলাইনে উদ্বোধনের দাওয়াত করা হলেও তিনি তা করেননি। তিনি ছাত্রলীগের কোন কর্মসূচীতে অংশগ্রহন করেন না। বরং জামায়াতের শিক্ষককে দিয়ে আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দেয়ান।

তবে এ ব্যাপারে উপাচার্যের সাথে কথা বলতে চাওয়া হলেও ভিতরে প্রবেশের অনুমতি মেলেনি। তার মোবাইলে যোগাযোগ করা হলেও রিসিভ করেননি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য