মোঃ ইউসুফ আলী,আটোয়ারী (পঞ্চগড়) থেকেঃ পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলার ছোটদাপ গ্রামে নিখোঁজের ৪ দিনের মাথায় সিফাত (২০) নামে কলেজ ছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে র‌্যাব-১৩।

শনিবার (০৯ জানুয়ারী) সকালে নিহতের বাড়ির ২০০ গজ দূরে আবাদী জমি হতে মাটি খুড়ে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নীলফামারী র‌্যাব-১৩ এর অধিনায়ক রেজা আহমেদ ফেরদৌস জানান, গত ৪ জানুয়ারী রাতে বাড়ির পাশে ব্যাডমিন্টন খেলতে যায় উপজেলার ছোটদাপ গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে দিনাজপুর আদর্শ কলেজের ছাত্র ফাহিত হাসান সিফাত। রাতে সে বাড়ি ফেরেনি।

পরদিন তার পিতা শফিকুল ইসলাম আটোয়ারী থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করেন। ডায়রী নং ১৮৮ এবং ছেলেকে উদ্ধারে নীলফামারী র‌্যাব-১৩ বরাবরে লিখিত আবেদন জানায়। নিখোঁজের পিতার আবেদনের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৩ এর একটি চৌকস দল ঘটনা তদন্তে মাঠে নামে এবং ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকায় মতিউর রহমান মতি (১৮) সহ ৪ জনকে আটক করে।

তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে আবেদনের ১৮ ঘন্টার মধ্যে র‌্যাব সিফাতের মৃত্যুর রহস্য নিশ্চিত হয় এবং শনিবার সকালে মৃতের বাড়ির পাশ থেকে তার লাশ উদ্ধার করে। সিফাতকে পারিবারিক কলহের কারণে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করে লাশ মাটিতে পুতে রাখে বলে জানায় এই কর্মকর্তা।

এ সময় পঞ্চগড় পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার সার্কেল সুদর্শন কুমার রায়, ঠাকুরগাঁও ও পঞ্চগড় জেলার দায়িত্বে কর্মরত পিবিআই’র সহকারী পুলিশ সুপার মো: রেজা, আটোয়ারী থানার ওসি ইজার উদ্দীন, পঞ্চগড় ডিবি ইন্সপেক্টর জয়ন্ত কুমার সাহা, র‌্যাবের বিভিন্ন কর্মকর্তা, সিআইডি, এনএসআই, ডিএসবি সহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার লোক, প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মীগণ সহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

এ ঘটনায় আটোয়ারী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য