গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠানে আপনার সেজেগুজে যাওয়ার কথা! আপনি সকালে উঠে দেখলেন ডান গালে একটা মসুর ডালের বড়ার মতো পিম্পল! ব্রণ! আপনার সব পরিকল্পনা শেষ।

তবে কিছু সাধারণ পদ্ধতি মেনে চললে পিম্পল বা ব্রণ কমে যায়। বেশি করে পানি পান করলে, সুষম ডায়েট মানলে এবং অবশ্যই জাঙ্ক খাবার এড়িয়ে চললে ব্রণ এমনিতেই কমে যায়। তবে সেটা রাতারাতি হুড়মুড় করে হবে না। সময় লাগবে।
এক রাত্তিরে আপনার ব্রণ নিখোঁজ হবে একটি নিয়ম মানলেই।

চলুন জেনে নিই ফর্মুলা

ফ্রিজে বরফ কিউব থাকে নিশ্চয়ই? একটা নরম কাপড়ে মুড়ে ওই বরফের টুকরো পিম্পলের ওপরে আলতো করে চেপে ধরুন। এতে ব্রণ ভেতর থেকে শুকিয়ে যাবে। কুড়ি সেকেন্ড মতো রাখবেন। দিনে দু’বার এটা করা যায়।

অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল গুণ আছে টি ট্রি অয়েলেও। দাম একটু বেশি, তবে কাজ দেয় মারাত্মক। সরাসরি এটা লাগাবেন না। দু’ফোঁটা নিয়ে তার সঙ্গে নারকেল তেল মিশিয়ে পিম্পলে লাগাবেন। কয়েক ঘণ্টা রেখে হাল্কা গরম পানিতে ধুয়ে ফেলুন।

একই গুণ আছে গ্রিন টিয়েরও। ওই চায়ের টি-ব্যাগ গরম পানিতে দিয়ে ফুটিয়ে নিন, তার পর ঠাণ্ডা হলে পিম্পলে লাগান।

ত্বক আর চুল ভাল রাখতে মধু যে কত উপকারী। তবে মধু ব্রণও সারিয়ে দিতে পারে, সেটা জানেন কি? মধুর অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল গুণ ব্রণ সারিয়ে তুলবে। তাই বলে একগাদা লাগাবেন না। রাত্রে এক দু’ফোঁটা লাগিয়ে দিন ব্রণে, সকালে উঠে ধুয়ে ফেলুন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য