দিনাজপুর সংবাদাতাঃ “আশ্রয়নের অধিকার, শেখ হাসিনার উপহার” এ প্রতিপাদ্যকে অগ্রাধিকার দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ণ- ২ প্রকল্পের আওতায় ভূমিহীন ও গৃহহীন অর্থাৎ “ক” শ্রেণীর পরিবারের পুনর্বাসনের লক্ষে দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ উপজেলায় বর্তমানে ৩৫০টি সেমিপাকা ঘর নির্মাণ হচ্ছে এর মাধ্যমে মধ্যে ৩৫০টি পরিবার পুনর্বাসিত হচ্ছে। ০৫ নভেম্বর ২০২০খ্রি. তারিখ মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য জনাব মনোরঞ্জন শীল গোপাল, উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, আওয়ামী লীগ এর নেতৃবৃন্দসহ অন্যান্য সুধীজনের উপস্থিতিতে উপজেলার মরিচা ইউনিয়নে এর কাজ শুরু হয়। বর্তমানে নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ দিকে।

উল্লেখ্য এ প্রকল্পে ঘর প্রতি নির্মাণ মূল্য ১,৭১,০০০/- টাকা। এ উপজেলায় মোট বরাদ্দ ৫,৯৮,৫০,০০০/- টাকা। এ উপজেলার ১৬টি স্থানে মোট ১১.৫০ একর সরকারি খাস জমিতে নির্মাণ কাজ ত্বরিত গতিতে সম্পন্ন হচ্ছে। নির্মাণ কাজের মান সন্তোষজনক বলে সরেজমিনে উপকার ভোগীদের কাছ থেকে জানা যায়। উল্লেখ্য প্রতি ঘরে ০২টি কক্ষ, ১টি বাথরুম, ১টি রান্নাঘর, বারান্দাসহ প্রতি উপকারভোগী গড়ে ২.০ থেকে ৩.০০ শতাংশ বন্দোবস্তসহ ইতোমধ্যে উপকারভোগী নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে এবং উপকারভোগীগণ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ।
বীরগঞ্জের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবদুল কাদের জানান যে, এ উপজেলায় ভূমিহীন ও গৃহীন পরিবারের সংখ্যা ২০৪৭; বর্তমানে ৩৫০টি পরিবারকে এ প্রকল্পের আওতায় পুনর্বাসন করা হচ্ছে এবং পর্যাক্রমে সকল গৃহহীনকে মুজিব বর্ষের মধ্যেই পুনর্বাসিত করা হবে।

উল্লেখ্য যে, ০৮/১২/২০২০খ্রি. তারিখ জনাব মো: মাহমুদুল আলম, জেলা প্রশাসক, দিনাজপুর ও ২৬/১২/২০২০খ্রি. তারিখ জনাব আবু সালেহ মোঃ মাহফুজুল আলম অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব), দিনাজপুর সরেজমিনে নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সহকারী কমিশনার (ভূমি), উপজেলা প্রকৌশলী, বীরগঞ্জ, দিনাজপুর ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাসহ অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ নির্মাণকাজসমূহ প্রতিনিয়ত পরিদর্শন করছেন মর্মে জানা যায়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য