চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার পাকা বাড়ি পাচ্ছে দিনাজপুরের চিরিরবন্দরের ২শ ১৫ গৃহহীন পরিবার। আগামী ৩০শে ডিসেম্বর এসব বাড়ি তাদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ এই উপহার পেয়ে খুশি ভূমিহীন পরিবারগুলো।

ভূমিহীন শরীফা বেগম,স্বামীহারা ৬ সন্তানের জননী এই নারীর ঠাঁই ছিল ইসবপুর সাওঁতাল গ্রামের মাটির কুটরি ঘরে। শ্রমিক সন্তানদের মায়ের দেখভালের সামর্থ্য নেই। তাই কষ্ট ছিল সীমাহীন। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর দেয়া পাকা বাড়ি ও দুই শতক জমির খবরে যেন খুশির শেষ নেই তার।

সুবিধাভোগী শরীফা বেগম বলেন, আগে তো আছিলাম কষ্টে, কিন্তু সরকার দিলো ঘর। খুব খুশী হয়েছি আমরা। শুধু শরীফা নয়, তার মতো চিরিরবন্দরের ২শ ১৫টি দরিদ্র গৃহহীন পরিবার মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার হিসেবে পাচ্ছেন পাকা বাড়ি। এতে উচ্ছ্বসিত তারা। তারা জানান,’বিদুৎ, পাকা রাস্তা, আমরা অনেক খুশী। আনন্দ লাগছে। আমরা দালান পাচ্ছি। শেখের বেটির জন্য দোয়া করি। আল্লাহপাক যেন তাকে আরও তৈফিক দান করেন।’

সরকারের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের মাধ্যমে খাস জমি খুঁজে কাজটি বাস্তবায়ন করছে উপজেলা প্রশাসন। সময়মতো কাজ শেষ করার পাশাপাশি মান ঠিক রাখতে তদারকি করছে বাস্তবায়নকারী কর্তৃপক্ষ। চিরিরবন্দর সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইরতিজা হাসান বলেন,’সাময়িকভাবে তাদেরকে একটু জায়গাটা খালি করে দিতে হবে। সেখানেই তাদের জন্য বাড়ি নির্মান হচ্ছে। খাস জমিতে এখনও পর্যন্ত বাড়ি নির্মাণে সক্ষম হয়েছি।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আয়েশা সিদ্দীকা জানান,’কাজের অগ্রগতি ভালো। প্রধানমন্ত্রীর যে ঘোষণা, নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই কাজ সম্পন্ন করতে পারবো।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য