আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ চিনিকলে আখ মাড়াই কার্যক্রম চালুর দাবীতে রংপুর সুগার মিলের গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার মহিমাগঞ্জ এলাকায় আধাবেলা হরতাল পালন করেছে শ্রমিক-কর্মচারী ও আখচাষীরা।

বৃহস্পতিবার (২৪ ডিসেম্বর) সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত মহিমাগঞ্জ এলাকায় এই হরতাল পালন করা হয়। হরতাল চলাকালে সকাল ১১টার দিকে মহিমাগঞ্জ রেল স্টেশনে সান্তাহার থেকে আসা বুড়িমারীগামী করতোয়া এক্সপ্রেস ট্রেনটি প্রায় এক ঘন্টা অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকেন শ্রমিক-কর্মচারী ও আখ চাষীরা।

এরআগে, সকাল থেকেই হরতালের সমর্থনে শ্রমিক-কর্মচারী ও আখ চাষীরা চিনিকলের প্রধান ফটকের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করেন। এছাড়া তারা মহিমাগঞ্জ বাজারসহ রাস্তার মোড়ে অবস্থান নিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেন। অর্ধদিবস হরতালে স্থানীয়রা ব্যবসায়ীরা তাদের দোকান-পাট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে হরতালের সমর্থন জানায়।

হরতালের সময় বিক্ষোভ-সমাবেশে শ্রমিক নেতারা বলেন, লোকসানের অজুহাতে রংপুরের মহিমাগঞ্জ সুগার মিলসহ ছয়টি চিনিকল বন্ধের সিদ্ধান্ত পরিকল্পিত। বেসরকারি চিনিকল মালিকদের যোগসাজশে সরকারি চিনিকলগুলো বন্ধ করা হয়েছে। অবিলম্বে চিনিকলগুলো চালু করে চাষীদের পাওনাসহ শ্রমিকদের বকেয়া বেতন পরিশোধ করা না হলে আরো বৃহত্তর কর্মসূচি দেয়ার হুঁশিয়ারি দেন শ্রমিক নেতারা। এছাড়া চিনিকল খুলে দেয়া না হলে অন্য চিনিকলে এ অঞ্চলের জমির আখ দেবেন না বলেও জানান চাষিরা।

ট্রেন অবরোধ ছাড়া শান্তিপূর্ণ ভাবে হরতাল পালনের বিষয়টি নিশ্চিত করে গোবিন্দগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ একেএম মেহেদী হাসান জানান, হরতালে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সকাল থেকে মহিমাগঞ্জ এলাকায় পুলিশের টহল জোরদার করা হয়েছিল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য