বড়দিন ও নববর্ষের ছুটিতে ইতালি রেড জোন

আন্তর্জাতিক

নতুন করে বাড়ছে কোভিড-১৯ সংক্রমণ। যা প্রতিরোধে ইতালিজুড়ে আবারও লকডাউন জারি করা হয়েছে। বড়দিন ও নববর্ষের ছুটির পুরো সময়ই লকডাউন চলবে।

ফলে জার্মানি ও নেদারল্যান্ডসের মত ইতালির বাসিন্দাদেরও বড়দিন ও নতুন বছরের ছুটি বাড়িতেই কাটাতে হবে।

বিবিসি জানায়, শুক্রবার নতুন করে ঘোষণা করা লকডাউনে সরকারি ছুটির দিনগুলোতে পুরো দেশ ‘রেড-জোনের’ আওতায় থাকবে। ওই সময় জরুরি নয় এমন সব দোকানপাট, সবধরনের রেস্তোরাঁ ও বার বন্ধ থাকবে। শুধুমাত্র কাজে যেতে এবং স্বাস্থ্য ও জরুরি প্রয়োজনে বাড়ির বাইরে বের হওয়া যাবে।

বাড়িতে কোনো পার্টির আয়োজন করা যাবে না। তবে বিধি মেনে সর্বোচ্চ দুইজন অতিথিকে আমন্ত্রণ জানানো যাবে।

ইতালির প্রধানমন্ত্রী জিউসেফ কোন্তে বলেন, আবারও দেশজুড়ে লকডাউন জারি করা ‘সহজ সিদ্ধান্ত ছিল না’।

এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, ‘‘বড়দিনের ছুটির সময় আক্রান্তের সংখ্যা এক লাফে অনেকটা বেড়ে যেতে পারে। যা নিয়ে আমাদের বিশেষজ্ঞরা ভীষণভাবে উদ্বিগ্ন…..তাই আমাদের ব্যবস্থা নিতেই হয়েছে।”

ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ইতালিতেই কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। সেখানে এ মহামারী প্রায় ৬৮ হাজার মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে।

ইতালিতে এ মাসের শেষ দিকে কোভিড টিকাদান কর্মসূচি শুরু হতে পারে। কোন্তে বলেন, ‘‘সেটা ভয়াবহ এই দুঃস্বপ্নের শেষের শুরু হবে।”

আগামী ২৪ থেকে ২৭ ডিসেম্বর, ৩১ ডিসেম্বর থেকে ৩ জানুয়ারি এবং ৫ থেকে ৬ জানুয়ারি পুরো ইতালি ‘রেড-জোনের’ আওতায় থাকবে।

ওই সময়ে লোকজন কেবল কর্মক্ষেত্রে যেতে, জরুরি প্রয়োজনে এবং স্বাস্থ্যগত কারণে বাড়ির বাইরে যেতে পারবেন।

এছাড়া ওই সময়ে বাড়িতে সর্বোচ্চ দুইজন অতিথিকে ডাকা যাবে। তবে অতিথিদের বয়স অবশ্যই ১৪ বছরের কম হওয়া যাবে না। ওই সময়ে রাত ১০টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত কারফিউ জারি থাকবে।

বাকি দিনগুলো অর্থাৎ, ২৮ থেকে ৩০ ডিসেম্বর এবং ৪ জানুয়ারি বিধিনিষেধ কিছুটা শীথিল থাকবে। এই দিনগুলোতে লোকজন বাড়ির বাইরে যেতে পারবেন কিন্তু সব রেস্তোরাঁ ও বার বন্ধ থাকবে।

বাসিন্দারা লকডাউনের বিধিনিষেধ ঠিকমত পালন করছে কিনা তা দেখেতে বাড়ি বাড়ি পুলিশ পাঠানো হবে না বলে জানান কোন্তে। তবে তিনি ইতালির জনগণকে লকডাউনের সময় দায়িত্বশীল আচরণ করার অনুরোধ করেছেন।