লালমনিরহাট এয়ারপোর্ট সংলগ্ন এলাকায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী ক্যাম্পাসের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন বিমান বাহিনীর প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত।

এ সময় তিনি বলেন, বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয়টি বাংলাদেশে অ্যাভিয়েশন এবং অ্যারোস্পেস সম্পর্কিত প্রথম ও একমাত্র উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। দক্ষ বৈমানিক, বিমান প্রকৌশল, বেসরকারি বিমান পরিবহনের ক্ষেত্রে সকল স্তরের দক্ষ জনবল, বিমান তৈরি ও রক্ষণাবেক্ষণের সকল স্তর, মহাকাশ সম্পর্কিত উচ্চ শিক্ষা, তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক জ্ঞান প্রদানে এই বিশ্ববিদ্যালয় জনশক্তি উৎপাদনে কাজ করে যাবে।

উল্লেখ, প্রধানমন্ত্রী সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা ও যুগান্তকারী পদক্ষেপের লক্ষে গত ২০১৯ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংসদে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস বিশ্ববিদ্যালয় আইন পাশ হয়। সেই লক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় একাডেমিক কার্যক্রম ২০২০ সালে শুরু হয়। লালমনিরহাটে বিশ্ববিদ্যালয়টি মূল স্থাপনা ও অবকাঠামো নির্মাণের কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় অধীনে লালমানিরহাটে বৈমানিক, বিমান প্রকৌশল ও মহাকাশ বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে উচ্চ শিক্ষার তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক প্রশিক্ষণ ২০২১-২০২২ শিক্ষা বর্ষে শুরু হবে। ২০২১ শিক্ষা বর্ষে লালমনিরহাটে পাঁচটি বিষয়ে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হবে । বিষয় গুলো হচ্ছে- বিএসসি ইন অ্যারো স্পেস, বিএসসি ইন অ্যাভিওনিক্স, বিএসসি ইন এমই, বিএসসি ইন ইইই, বিএসসি ইন সিএসই।

ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ভিসি এয়ার ভাইচ মার্শাল এ এইচ এম ফজজুল হক। তিনি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে আন্তর্জাতিক বহুজাতিক কোম্পানি, হাইর‌্যাংকিং বিশ্ববিদ্যালয়, স্বনামধন্য অ্যাভিয়েশন কোম্পানি ও বিবিধ অ্যাভিয়েশন অথোরিটির সঙ্গে সহযোগিতার ভিত্তিতে আন্তর্জাতিক মান অর্জনে প্রচেষ্টা ও প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

এ সময় বিমান বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ ও সংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য