ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার শিবনগর ইউনিয়নের চকচবির মিরপাড়া গ্রামের জঙ্গল থেকে বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) সকালে অজ্ঞাত (৪৫ ) এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

লাশটিকে পড়নের শাড়ি দিয়ে হাত বাঁধা এবং নাইলনের দড়ি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ওই দড়ি দিয়ে গাছের গোঁড়ায় বাঁধা অবস্থায় ফেলে রাখা ছিল।

চককবির মিরপাড়া গ্রামের বাসিন্দা ওই জঙ্গলের মালিক আব্দুর রাজ্জাক বলেন, সকাল ৮ টার দিকে তার ভুট্টা ক্ষেত পরিচর্যা করতে ওই জঙ্গল দিয়ে যাওয়ার সময় ইউক্যালিপটাস গাছের নিচে ওই নারীকে পড়ে থাকতে দেখে গ্রামবাসীকে জানান। পরে গ্রাম পুলিশের মাধ্যমে থানা পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করে। নিহত ওই নারীকে এলাকায় কেউ চিনতে পারেননি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন এলাকাবাসী জানান, ধারনা করা হচ্ছে ওই নারীকে অন্য কোথাও এসে ধর্ষণের পর পড়নের শাড়ি দিয়ে তার হাত বেঁধে এবং নাইলনের দড়ি দিয়ে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর ওই দড়ি দিয়ে গাছের গোঁড়ার সাথে বেঁধে রেখে দুষ্কৃতিকারীরা পালিয়ে গেছে। ঘটনার সাথে একাধিক দুষ্কৃতিকারী থাকতে পারে বলেও ধারনা করছেন এলাকাবাসী।

ফুলবাড়ী থানার ওসি ফখরুল ইসলাম জানান, নিহত নারীকে স্থানীয়রা কেউ নাম ও পরিচয় শনাক্ত করতে পারছেন না। লাশটিকে ঘিরে রাখা হয়েছে। পিবিএ এবং সিআইডির টিম আসলে তারা লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হবে। তবে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন হাতে না আসা পর্যন্ত কীভাবে তাকে হত্যা করা হয়েছে এবং হত্যাকাণ্ডের পূর্বে তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে কী না তা বলা যাবে।

খবর পেয়ে ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রিয়াজ উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য