দিনাজপুর সংবাদাতাঃ “আয় আয় সোনা মনি টিকা নিয়ে যায়”-এবারের এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ১২ ডিসেম্বর শনিবার সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচী (ইপিআই) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সার্বিক সহযোগিতায় দিনাজপুর পৌরসভা’র স্বাস্থ্য শাখার আয়োজনে হাম-রুবেলা (এমআর) টিকা দান ক্যাম্পেইন-২০২০ এর উদ্বোধন করেছেন প্রধান অতিথি দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ আসিফ হাওলাদার, ডিসিএস ডাঃ শাহ মোঃ এজাজুল হক, এসআইএমও ডাঃ পল্লব চক্রবর্তী, জুনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা অফিসার মোঃ নুরুল ইসলাম, ইপিআই সুপারিনন্টেন্ট মোঃ ইছাম উদ্দিন, ইপিআর ষ্টোর কিপার মাহফুজুল ইসলাম, পৌরসভার ইপিআই সুপারভাইজার মমরেজ সুলতানা, টিকাদান কর্মী মাফরুজা বেগম, মিম্মু খান, স্বেচ্ছাসেবী মোঃ মাইনুল ইসলম ও মোঃ খাদিমুল ইসলাম।

দিনাজপুর পৌরসভা সহ ৫টি পৌরসভা ফুলবাড়ী পৌরসভা, বিরামপুর পৌরসভা, পার্বতীপুর পৌরসভা ও সেতাবগঞ্জ পৌরসভায় একযোগে ১২ ডিসেম্বর হতে ২৪ জানুয়ারী পর্যন্ত এই ক্যাম্পেইনের কার্যক্রম চালু থাকবে। দিনাজপুর পৌরসভায় ১২টি ওয়ার্ডে ৫৭৬টি কেন্দ্রের মাধ্যমে ৯ মাস থেকে ১০ বছরের শিশুকে হাম রুবেলা টিকা দেওয়া হচ্ছে। প্রধান অতিথি পৌরসবার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, হাম এবং রুবেলা ভাইরাস জনিত দুইটি মারাত্মক সংক্রামক রোগ।

এই দুটি রোগ সাধারন একজন আক্রান্ত রোগীর হাঁচি-কাশির মাধ্যমে তার সংস্পার্শে আসা অন্যদের মধ্যে অতি দ্রুত ছড়ায়। এ রোগের কারণে নিউমনিয়া, ডায়রিয়া, অপুষ্টি, এনকেফালাইটিস, অন্ধত্ব ও বধিরতা অন্যতম। হাম-রুবেলা রোগ থেকে বাঁচার সর্বোৎকৃষ্ট উপায় হচ্ছে সঠিক সময়ে শিশুকে টিকা দিয়ে সুরক্ষিত করা। প্রধান অতিথি পৌর মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম স্বাস্থ্য কর্মীদের দ্বারা একটি শিশুকে টিকা দিয়ে কর্মসূচীর উদ্বোধান করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য