ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান এবং আফগানিস্তানের মধ্যে যৌথ একটি রেল প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়েছে। এ প্রকল্পের মধ্যদিয়ে ইরানের পূর্বাঞ্চল এবং আফগানিস্তানের পশ্চিমাঞ্চলের মধ্যে রেল যোগাযোগ স্থাপিত হলো।

প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ইরান এবং আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বক্তব্য রাখেন এবং আশা প্রকাশ করেন যে, এই প্রকল্প ব্যবহার করে মধ্য এশিয়ার বিস্তীর্ণ অঞ্চলে বাণিজ্য বাড়ানো সম্ভব হবে।

ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি বলেন, ইরান এবং আফগানিস্তানের জনগণের মধ্যে সবসময় একটি ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল এবং খাপ-হেরাত রেলওয়ে প্রকল্প এই সম্পর্ক আরো জোরদার করবে।

তিনি বলেন, আজকের দিন হচ্ছে ইরান ও আফগান জাতির জন্য ভালোবাসা, ক্ষমা এবং যুগান্তকারী ঘটনার দিন। একই উৎস থেকে দুই জাতির উৎপত্তি; দুই জাতির ইতিহাস সংস্কৃতি এবং একই অঞ্চলে বসবাস যারা ইতিহাসের দীর্ঘ পরিক্রমায় ভ্রাতৃত্ব ও সৎ প্রতিবেশীসুলভ সম্পর্ক রক্ষা করে চলেছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি রেল প্রকল্পকে ঐতিহাসিক বলে মন্তব্য করেন এবং আশা করেন যে, এই প্রকল্পের মাধ্যমে দুই দেশের মধ্যকার অর্থনৈতিক সম্পর্ক আরো উন্নত হবে।

এদিকে, ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ এই রেল প্রকল্পকে আঞ্চলিক বাণিজ্য উন্নয়নের প্রকল্প হিসেবে উল্লেখ করেন। এর মাধ্যমে দু’দেশের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ বিনিময় হবে বলেও তিনি আশা করেন।

২২৫ কিলোমিটার রেললাইনের এ প্রকল্পের ৭৮ কিলোমিটার ইরানের ভূখণ্ডে পড়েছে এবং বাকি রেললাইন আফগানিস্তানের ভেতর পড়বে। ২০০৭-২০০৮ অর্থবছরে এই প্রকল্পের কাজ শুরু হয় যা ইরানের পূর্বাঞ্চলীয় খাফ শহর ও আফগানিস্তানের পশ্চিমাঞ্চলীয় গোরিয়ান শহরকে সংযুক্ত করেছে। -পার্সটুডে

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য