বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকারের করা বিতর্কিত তিনটি কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে অনড় ভারতের আন্দোলনকারী কৃষকরা।

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, মঙ্গলবার স্থানীয় সময় দুপুরে কৃষক সংগঠনগুলির ডাকা ভারতজুড়ে বনধ চলাকালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের দপ্তর থেকে ফোন করে কৃষক নেতাদের বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল, কিন্তু বৈঠক ফলপ্রসূ হয়নি।

সন্ধ্যায় রাজধানী দিল্লিতে পুসার ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব এগ্রিকালচারাল রিসার্চের অতিথিশালায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কৃষক নেতাদের বৈঠক হয়। কিন্তু সাড়ে তিন ঘণ্টা ধরে বৈঠক চলার পরও উভয় পক্ষ নিজ নিজ অবস্থানে অনড় থাকে।

অমিত শাহ প্রথমবারের মতো কৃষক নেতাদের সঙ্গে সরাসরি বৈঠক করলেও নয়া কৃষি আইন আইন বাতিলের দাবিতে অটল থাকেন কৃষক প্রতিনিধিরা।

সর্বভারতীয় কৃষাণ সভার সাধারণ সম্পাদক হান্নান মোল্লা বলেন, “এ পর্যন্ত পাঁচটি বৈঠকে সরকার বার বার একই কথা বলেছে। আইন সংশোধনের যে সব কথা মন্ত্রীরা এতোদিন বলে এসেছেন অমিত শাহ্ও তাই বলেছেন। তাকে বলেছি, নতুন কথা বলুন, একই কথা বারবার বলে লাভ কী?”

এর জেরে বুধবার কৃষক নেতাদের সঙ্গে মন্ত্রীদের পূর্বনির্ধারিত বৈঠকটি হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন হান্নান।

তিনি জানান, বুধবার সকাল ১১টার মধ্যে সরকার প্রস্তাব জানিয়ে চিঠি পাঠাবে, তা নিয়ে কৃষক সংগঠনের নেতারা বৈঠক করবেন। এরপর বৃহস্পতিবার সরকারের সঙ্গে ফের বৈঠক হতে পারে।

সরকারের সঙ্গে ছয় দফা বৈঠকেও কোনো ফল না আসায় আন্দোলন আরও জোরদার করার প্রস্তুতি নিচ্ছে কৃষক সংগঠনগুলো। এই লক্ষে পাঞ্জাব ও হরিয়ানা থেকে বহু কৃষক ট্র্যাক্টর নিয়ে দিল্লির পথে রওনা হয়েছেন বলে জানা গেছে। আন্দোলনকারীরা ট্র্যাক্টর নিয়ে রাজধানীর ভিতরে ঢুকে পড়ার পরিকল্পনা করেছেন।

এদিকে অচলাবস্থা কাটাতে রাষ্ট্রপতির হস্তক্ষেপ দাবি করতে কংগ্রেসের রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বে বিরোধীদলীয় নেতা ও সাংসদরা বুধবার দেশের প্রেসিডেন্ট রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গে দেখা করবেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য