ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের ইলুরু শহরে ‘রহস্যময়’ অসুস্থতায় একজনের মৃত্যু হয়েছে এবং হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন প্রায় ৩০০ জন।

অসুস্থদের মধ্যে খিঁচুনি, হঠাৎ সংজ্ঞা হারিয়ে ফেলা, কাঁপুনি ও মুখে ফেনা তোলার মতো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে বলে টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে।

যে রোগী মারা গেছেন তিনি ইলুরু সরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষগুলোও ‘রোগটির’ বিষয়ে কিছু জানাতে পারছেন না।

কেন বিস্তৃত একটি এলাকায় বসবাসকারী মানুষের মধ্যে এই অসুস্থতা দেখা দিল, সে বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারছেন না তারা।

শনিবার ইলুরুর চারটি পৃথক এলাকায় ৪৫ জনের মধ্যে এসব লক্ষণ প্রকাশ পায়। তারপর থেকে বিভিন্ন এলাকায় অসুস্থ হয়ে পড়া প্রায় ৩০০ জনকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এদের মধ্যে ৪৬ জন শিশু ও ৭০ জন নারী।

হাসপাতালে ভর্তি হওয়া সবার কোভিড-১৯ পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছে। রোগীরা চোখ জ্বালাপোড়ার কথা জানিয়েছেন বলে ইলুরু সরকারি হাসপাতালের একজন চিকিৎসা কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

অসুস্থদের প্রত্যেকের স্নায়ুতন্ত্র আক্রান্ত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে; কিন্তু কী থেকে এমন হয়েছে তা স্পষ্ট নয়।

দূষিত পানি বা খাবার থেকে এমন হওয়ার সম্ভাবনা বাতিল করে দিচ্ছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষগুলো। এই স্বাস্থ্য সমস্যার রহস্য ভেদ করতে দিল্লির এআইআইএমএসের একটি বিশেষজ্ঞ দল ও ইলুরুর সরকারি চিকিৎসকদের সমন্বয়ে একটি টিম গঠন করা হয়েছে।

রোগীদের সেরিব্রাল-স্পাইনাল ফ্লুইডের নমুনা বিশাখাপত্তনম ও বিজয়াওয়াডার পরীক্ষাগারগুলোতে পাঠানো হয়েছে। এই পরীক্ষার রিপোর্টগুলো পাওয়ার পর অসুস্থতার প্রকৃত কারণ বোঝা যাবে বলে আশা করছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য