তিব্বতে ব্রহ্মপুত্র নদের ওপর বাঁধ নির্মাণের আগে চীন তার সকল প্রতিবেশী দেশের স্বার্থের দিকটি বিবেচনা করবে বলে আশ্বস্ত করেছেন ভারতের চীনা দূতাবাসের একজন কর্মকর্তা। বুধবার তিনি এমনটি জানান।

সোমবার চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয় যে তিব্বতে ব্রহ্মপুত্র নদের ভাটির মুখে বাঁধ নির্মাণের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য একটি জলবিদ্যুৎ কোম্পানিকে অনুমতি দিয়েছে চীনা কর্তৃপক্ষ। এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে নদের ভাটির দেশ ভারত ও বাংলাদেশে জলপ্রবাহ বিঘ্নিত হতে পারে বলে ধারণা করছিলেন ভারতীয় বিশেষজ্ঞরা ।

এদিকে চীনের বাঁধ নির্মাণের খবর প্রকাশ হওয়ার পর পাল্টা জবাব দিতে প্রস্তুত ছিলো ভারত। ভারতের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, অরুণাচল প্রদেশে ব্রহ্মপুত্র নদের ওপর ১০ গিগাওয়াটের জলবিদ্যুৎ প্রকল্প তৈরির পরিকল্পনা করছে তারা।

এ বিষয়ে একটি বিবৃতিতে ভারতের চীনা দূতাবাসের কর্মকর্তা জি রং বলেন, বাঁধ নির্মাণের পরিকল্পনা প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। এই নদের ওপর যে কোনও প্রকল্প উজান এবং ভাটির উভয় দেশের স্বার্থের কথা বিবেচনার করে বৈজ্ঞানিক পরিকল্পনার মাধ্যমে করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য