সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় বেশ কিছু আরব রাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিকের পথে হাঁটছে ইসরায়েল। ইতোমধ্যে অনেক রাষ্ট্রের সঙ্গে চুক্তিও হয়েছে ইসরায়েলের। এবার তারই ধারাবাহিকতায় ইসরায়েলকে নিজেদের আকাশসীমা ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে সৌদি আরব। ফলে এখন থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ইসরায়েলের বিভিন্ন এয়ারলাইন্সের বিমান সৌদির আকাশপথ ব্যবহার করতে পারবে।

তুর্কি বার্তাসংস্থা আনাদুলু এজেন্সি জানায়, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জামাতা ও হোয়াইট হাউসের শীর্ষ উপদেষ্টা জেয়ার্ড কুশনারের সঙ্গে সৌদি কর্মকর্তাদের বৈঠক হয়েছে। সেই বৈঠকের পর ইসরায়েলি বিমান চলাচলে আকাশপথ ব্যবহারের বিষয়ে রাজি হয়েছে রিয়াদ।

জানা যায়, কুশনার, যুক্তরাষ্ট্রে মধ্যপাচ্যের বিশেষ দূত আভি বেরকোয়িতজ এবং মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপদেষ্টা ব্রায়ান হুক সৌদি আরবে পৌঁছানোর পর কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে প্রথমেই এ বিষয়টি তুলি ধরেন। গতকাল সোমবার ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের এক কর্মকর্তা বলেন, বিষয়টি মিটমাট করতে সক্ষম হয়েছি আমরা।

সৌদি সফরের পর জেয়ার্ড কুশনার এবং তার একটি টিম কাতারে যাবেন। প্রতিবেশী উপসাগরীয় দেশগুলোর মধ্যকার দীর্ঘদিনের সংকট সমাধানে ওই দুই দেশের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন তারা। সাম্প্রতিক সময়ে নিজেদের মধ্যে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন এবং সুদানের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে ইসরায়েলের।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য