ফুলবাড়ীঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে বেতন ও গ্রেড বৃদ্ধির দাবীতে কর্মবিরতি কর্মসূচি পালন করছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত স্বাস্থ্যসহকারীগণ।

শনিবার সকাল থেকে কেন্দ্রিয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে তারা এই কর্মসূচি পালন করছে ।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা যায় সেবাদানকারী স্বাস্থ্যসহকারীগণ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে ব্যানার নিয়ে দাড়িয়ে কর্মবিরতি কর্মসূচি পালন করছেন।

বাংলাদেশ হেলথ এ্যাসিসট্যান্ট এসোসিয়েশন ফুলবাড়ী শাখার সভাপতি স্বাস্থ্য সহকারী ফাওজিয়া রেবেকা সুলতানা বলেন বেতন ও গ্রেড বৃদ্ধির দাবীতে কেন্দ্রিয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে শনিবার থেকে তাঁরা এই কর্মবিরতি কর্মসূচি পালন করছেন। দাবী পুরণ না হওয়া পর্যন্ত এই কর্মসূচি পালন করবেন বলে তিনি জানান। এসময় বাংলাদেশ হেলথ এ্যাসিসট্যান্ট এসোসিয়েশন ফুলবাড়ী শাখার সাধারন সম্পাদক স্বাস্থ্য সহকারী মোস্তফা আহম্মে, সাংগঠনিক সম্পাদক সাংগঠনিক সম্পাদক এরশাদ আলী, কোষাধক্ষ ইসমোতারাসহ ফুলবাড়ী উপজেলায় কর্মরত সকল স্বাস্থ্য সহকারী, পরিদর্শক ও সহকারী পরিদর্শকগণ উপস্থিত ছিলেন।

স্বাস্থ্য মহকারীগণ জানান তারা দির্ঘদিন থেকে গ্রেড ও বেতন বৃদ্ধির দাবী জানিয়ে আসলেও কর্তৃপক্ষ কোন কর্নপাত করছেনা, তাই আন্দোলনে নেমেছেন। স্বাস্থ্যসহকারীগণ জানান সারা বাংলাদেশে ২৬ হাজার স্বাস্থ্য সহকারী রয়েছে, এরমধ্যে দিনাজপুর জেলায় রয়েছে ৩০০জন ও ফুলবাড়ী উপজেলায় রয়েছে ২১জন কর্মরত আছে।

বিরলঃ দিনাজপুরের বিরলে বাংলাদেশ হেলথ এসিস্ট্যান্ট ও ইন্সপেক্টোরাল এসোসিয়েশন এর আয়োজনে, বেতন স্কেলসহ টেকনিক্যাল পদমর্যাদা ও বেতন আপগ্রেডেশনসহ ৪ দফা দাবীতে এবং সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচী (ইপিআই) ও হাম রুবেলা ক্যাম্পেইন বর্জনসহ সকল কার্যক্রম থেকে স্বাস্থ্য সহকারী, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য পরিদর্শকদের অনিদৃষ্ট কালের জন্য কর্মবিরতি শুরু করেছে।

শনিবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চত্বরে সকল কার্যক্রম বন্ধ রেখে অনিদৃষ্ট কালের জন্য কর্মবিরতি পালন করছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, স্বাস্থ্য পরিদর্শক মাইনুল হক, নজরুল ইসলাম, সহকারী স্বাস্থ্য পরিচালক রেজাউল ইসলাম, স্বাস্থ্য সহকারী আফজাল হোসেন, তপন চন্দ্র রায়, মনছুরা বেগম, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক, দুলাল চন্দ্র রায়, শহিদ সুলতান প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য