দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর জেলার বিরল উপজেলার বিরোধপূর্ণ জমিতে ধান কাটা নিয়ে হাসুয়া দিয়ে কুপিয়ে আপন চাচাকে খুন ভাতিজা ।

নিহত চাচার নাম- আব্দুল কাদের (৭৫)। তিনি বিরল উপজেলার ৭নং বিজোড়া ইউনিয়নের বল্লভপুর মাঝাপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজের ছেলে।

শুক্রবার দুৃপুরে বিরল উপজেলার ৭নং বিজোড়া ইউনিয়নের বল্লভপুর মাঝাপাড়া গ্রামে এই হত্যা কান্ডের ঘটনা ঘটে। হত্যাকারীরা পালিয়ে গেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি ধারালো হাসুয়া উদ্ধার করেছে।

জানা যায়, বাড়ীর পাশে ২৬ শতত আবাদি জমি নিয়ে ৫ ভাইয়ের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে আদালতে মামলাও রয়েছে। বিরোধীয় জমিতে চলতি মৌসুমে ৫ ভাই ও তাঁদের সন্তানেরা যে যার মত ধান আবাদ করে। শুক্রবার আব্দুল কাদের ধান কেটে শুকাতে দেয়। এ সময় অপর ভাই আবুল হোসেন বাবু’র ধান ক্ষেত আরেক ভাই রোস্তম আলী ও তাঁর স্ত্রী সন্তানসহ ভাড়াটে লোকজন নিয়ে জোড়র্পূক কাটতে যায়।

এ নিয়ে আব্দুল কাদের ও আবুল হোসেন দুই ভাই বাধা দিতে গেলে আরেক ভাই রোস্তম আলী সঙ্গে ধাক্কা ধাক্কি শুরু হয়। এ সময় রোস্তম আলীর ছেলে নাঈম ইসলাম (৩৫) ধারালো হাসুয়া দিয়ে চাচা আব্দুল কাদেরকে কোপ দেয়। এতে চাচা আব্দুল কাদের গুরুত্বর যখম হয়।

এ সময় তার চিদকারে বাড়ীর লোকজন ও প্রতিবেশীলা ছুটে আসলে নাঈম ইসলাম (৩৫) ও তারা বাবা- মা পালিয়ে যায়। আহত অবস্থায় আব্দুল কাদেরকে দিনাজপুরের এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে রাখা হয়েছে।

বিরল থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ নাসিম হাবিব হত্যা কান্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে একটি ধারালো হাসুয়া উদ্ধার করা হয়েছে। হত্যাকারীরা পালিয়ে গেছে। পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য