গাইবান্ধায় এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের আট বছর আগের এক মামলায় এক যুবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়েছে।

আসামির উপস্থিতিতে বুধবার জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক মুরাদ এ মওলা সোহেল এই রায় দেন।

দণ্ডিত মারুফুল ইসলাম ওরফে মারুফ (ওই সময়ের বয়স ২০) গাইবান্ধা সদর উপজেলার সাহাপাড়া ইউনিয়নের ভবানীপুর গ্রামের বজলুর রহমানের ছেলে।

রায়ে এই যুবকের পাঁচ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে, যা অনাদায়ে তাকে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম কারাভোগ করতে হবে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মহিবুল হক সরকার মোহন বলেন, ২০১২ সালের ২৭ ডিসেম্বর দুপুরে গাইবান্ধা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ছুটির পর বাড়ি যাওয়ার সময় মারুফুল হক অপহরণ করে।

“পরে টাঙ্গাইলে একটি বাড়িতে নিয়ে মারুফুল মেয়েটিকে ধর্ষণ করে।”

মোহন জানান, এই ঘটনায় ছাত্রীটির বাবা বাদী হয়ে গাইবান্ধা সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। সদর থানা পুলিশ ২০১৩ সালের ১০ জানুয়ারি টাঙ্গাইল থেকে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে।

ওই সময় অপহরণকারী পালিয়ে গেলেও পরবর্তীতে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে বলে মোহন জানান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য