সামসউদ্দীন চৌধুরী কালাম, পঞ্চগড় থেকেঃ পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় দুই স্কুল শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে গতকাল বুধবার বিকেলে তিন যুবককে আটক করেছে তেঁতুলিয়া থানা পুলিশ।

আটককৃতরা হল- তেঁতুলিয়া উপজেলার ভজনপুর ইউনিয়নের কাউরগছ গ্রামের হাফিজউদ্দিনের ছেলে ওমর ফারুক ইমন (২৬), একই ইউনিয়নের বামনপাড়া গ্রামের এনামুল হকের ছেলে মো. সোহাগ (২২) ও কাউরগছ গ্রামের দারাজউদ্দিন ওরফে গুমানুর ছেলে আনোয়ার হোসেন (২৬)।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, আটককৃত আনোয়ার হোসেন মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) দুপুরে ওই দুই শিক্ষার্থীকে বাড়ি থেকে তেঁতুলিয়া উপজেলার ভজনপুরের উদ্দেশ্যে নিয়ে যায়। সারাদিন বিভিন্নস্থানে ঘোরাঘুরির পর রাতে তাদেরকে ওমর ফারুক ইমনের কাছে হস্তান্তর করে আনোয়ার হোসেন।

গভীর রাতে পরিবারের লোকজন ভজনপুর ইউনিয়নের পাথরঘাটা নিজবাড়ি এলাকার আব্বাস আলীর বাসা থেকে দুই কিশোরীকে অসুস্থ্য অবস্থায় উদ্ধার করে। ঘটনাট পুলিশকে জানালে তেঁতুলিয়া থানা পুলিশ গতকাল বুধবার দুপুরে ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই দুই শিক্ষার্থীকে থানায় নিয়ে আসে। পরে দুই কিশোরীর জবানবন্দি অনুযায়ী ভজনপুর এলাকা থেকে ওই তিন যুবককে আটক করে পুলিশ।

এ ঘটনায় দুই কিশোরীর অভিভাবকরা থানায় ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে। দুই ছাত্রীর পরিবারের দাবি তাদের ধর্ষণ করা হয়েছে। পুলিশ গতকাল বুধবার বিকেলে ওই দুই শিক্ষার্থীর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।

পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) জানান, ধর্ষণের ঘটনায় তিন যুবককে আটক করা হয়েছে। ওই দুই কিশোরীর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। প্রকৃত ঘটনা জানার জন্য আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য