আগামী ২৮ ডিসেম্বর কুড়িগ্রাম পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী বাছাইয়ে পৌর আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২৪নভেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে জেলা পরিষদ হলরুমে অনুষ্ঠিত সভায় আওয়ামী লীগের ৬জন প্রার্থী দলীয় মনোনয়নের জন্য আবেদন করলেও পরে দুই প্রার্থী তাদের আবেদন প্রত্যাহার করে নেয়। পৌর আওয়ামী লীগের ৭১কাউন্সিলরের মধ্যে ৬৭কাউন্সিলরের ভোটে পৌর আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক মোস্তাফিজার রহমান সাজুকে দলীয় মেয়র প্রার্থী নির্বাচিত করা হয়।

পৌর আওয়ামী লীগ সুত্র জানায়, কুড়িগ্রাম পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র প্রার্থীর জন্য ৬জন আবেদন করেন। এরা হলেন কুড়িগ্রাম পৌরসভার বর্তমান মেয়র আবদুল জলিল, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান ও পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজিউল ইসলাম, পৌর আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক মোস্তাফিজার রহমান সাজু, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মমিনুল ইসলাম মমিন, আওয়ামী লীগ নেতা অলক সরকার ও নবারুন চক্রবর্তী মুন।

সভায় প্রার্থী নির্বাচনে ভোটের সিদ্ধান্ত হলে অলক সরকার ও নবারুন চক্রবর্তী তাদের আবেদন প্রত্যাহার করে নেন। পরে পৌর আওয়ামী লীগের ৭১সদস্যের মধ্যে ৬৭জন সদস্য মেয়র প্রার্থী নির্বাচনে ভোট প্রদান করেন। এতে পৌর আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক মোস্তাফিজার রহমান সাজু ৩২ভোট পেয়ে দলীয় মেয়র প্রার্থী নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজিউল ইসলাম পান ৩১ ভোট, বর্তমান মেয়র আবদুল জলিল পান ২ভোট ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মমিনুল ইসলাম মমিন পান ২ভোট।

মেয়র প্রার্থী নির্বাচনে প্রিজাইডিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করেন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি চাষী করিম, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক রবি বোস, আওয়ামী লীগ নেতা বদিউল আলম ও আখতাব হোসেন চিনু।

দলীয় নেতারা জানান, মেয়র প্রার্থী নির্বাচনে কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের জন্য ৩ জনের নাম পাঠানো হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য