ফিলিস্তিন থেকে ছোড়া রকেটের পাল্টায় গাজার বেশ কয়েকটি এলাকায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল।

রোববার এক বিবৃতিতে ইসরায়েলের সেনাবাহিনী বিমান হামলার কথা স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

শনিবার রাতে গাজা থেকে ছোড়া রকেটে দক্ষিণাঞ্চলীয় আশকেলন শহরের একটি কারখানা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে ইসরায়েলি পুলিশ।

রকেট ছোড়ার দায় কেউ স্বীকার না করলেও হামলার প্রতিক্রিয়ায় ইসরায়েলের বিমান হামাসের বেশ কয়েকটি সামরিক স্থাপনায় আঘাত হানে বলে জানিয়েছে দেশটির সামরিক বাহিনী।

পাল্টাপাল্টি হামলায় হতাহতের কোনো খবর তাৎক্ষণিকভাবে পাওয়া যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা রয়টার্সকে জানান, ভোরের আগে আগে ইসরায়েলি বিমান গাজা, রাফা ও খান ইউনিস শহরে হামলা চালানোর পর কিছু কিছু এলাকায় আগুন ও ধোঁয়ার স্তর দেখা গেছে।

“গাজা উপত্যকায় হওয়া এবং সেখান থেকে কিছু ছোড়ার যে কোনো ঘটনার জন্য সন্ত্রাসী সংগঠন হামাসই দায়ী এবং বেসামরিক ইসরায়েলিদের উপর হওয়া সব সন্ত্রাসী ঘটনার দায়ভারও তাদেরই বহন করতে হবে,” বিবৃতিতে এমনটাই বলেছে ইসরায়েলের সেনাবাহিনী।

২০১৪ সালে ইসরায়েল ও হামাসের মধ্যে সর্বশেষ যুদ্ধ হয়েছে; এরপর দু’পক্ষের মধ্যে মাঝে মাঝে গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটলেও সাম্প্রতিক মাসগুলোতে সীমান্ত অনেকটা শান্তই রয়েছে।

শনিবার রাতের রকেট হামলা ও রোববার ভোরের আগে ইসরায়েলের পাল্টা বিমান হামলা নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে গাজার হামাস কর্মকর্তাদের কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য