আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধা সদর, সুন্দরগঞ্জ ও ফুলছড়ি উপজেলার অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ, বন্যা প্রবণ ও নদী ভাঙন এলাকার সুবিধা বঞ্চিত জনগোষ্ঠী শিক্ষা, স্বাস্থ্য, সুশাসন ও অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। ফলে সাম্প্রতিক সময়ে ওইসব এলাকায় বাল্য বিবাহ, বহুবিবাহ, পারিবারিক সহিংসতা ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে।

উল্লেখিত সমস্যা সংকট নিরসন এবং বন্যা ও নদী ভাঙনের ক্ষয়ক্ষতি দ্রুত কাটিয়ে উঠার লক্ষ্যে ওইসব এলাকায় স’ায়ী উন্নয়নে সহায়ক প্রকল্প বাস্ত¥বায়ন করছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ফ্রেন্ডশিপ।

এই প্রকল্পের আওতায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর জীবনমান উন্নয়নের জন্য আধুনিক প্রযুক্তিতে কৃষি কাজ ও গবাদি পশু পালনের উপর প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে। এর পাশাপাশি তাদের বাড়ির আঙ্গিনায় সবজি চাষ, হাঁস-মুরগী, ছাগল-ভেড়া পালন ইত্যাদি আয় বৃদ্ধিমূলক কাজের সাথে যুক্ত করা হচ্ছে।

এই ধারাবাহিকতায় প্রতিষ্ঠানটি উন্নত জাতের সবজির বীজ, ভেড়া পালনে কৃষি সম্প্রসারণ ও প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তর থেকে তাদেরকে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। এছাড়াও যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর, সমাজসেবা বিভাগ, বিআরডিবি, মহিলা অধিদপ্তর কর্তৃক প্রদত্ত সরকারি সুযোগ সুবিধা চরাঞ্চলে সুবিধা বঞ্চিত মানুষদের মধ্যে প্রদানের ক্ষেত্রেও সংস্থাটি প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদান করছে। তদুপরি এলাকার রাস্তা-ঘাট মেরামত করার ক্ষেত্রে ইউনিয়ন পরিষদকে সহযোগিতা করা হচ্ছে।

এব্যাপারে প্রকল্প ইনচার্জ দিবাকর বিশ্বাস জানান, উঠান বৈঠকের মাধ্যমে ঝুঁকিপূর্ণ সুবিধা বঞ্চিত জনগোষ্ঠীকে সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। এছাড়া করোনা, আগাম বন্যা প্রস্তুতি, সম্মিলিত আপদ তহবিল গঠন, আইনী সেবা, গ্রাম আদালত, জাতীয় পরিচয়পত্র, জন্মনিবন্ধনসহ সমসাময়িক বিভিন্ন বিষয়ে তাদের সচেতন করে তোলার কার্যক্রম অব্যাহত রাখা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য