দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ী উপজেলায় কিস্তির টাকা দিতে না পেরে ওড়নায় ফাঁস দিয়ে লিজা আক্তার (২২) নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পরিবারের।

ঘটনাটি মঙ্গলবার ফুলবাড়ী উপজেলার শিবনগর ইউনিয়নের আদর্শ কলেজ পাড়া গ্রামে ঘটেছে। লিজা আক্তার ওই গ্রামের দিনমজুর সামিউল ইসলামের স্ত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আর্থিক অনটনে কোনরকমে চলছিল ওই পরিবারটি। মঙ্গলবার লিজার শাশুড়ি ইটভাটায় কাজে যান এবং তার স্বামী সামিউল ইসলাম গরু নিয়ে মাঠে যান। প্রতি মঙ্গলবারে তার কিস্তি ছিল। কিন্তু ওইদিন কিস্তির জন্য টাকা জোগাড় ছিল না। তাই লিজা প্রতিবেশিদের কাছে ধার হিসেবে টাকা চাইতে গেলে কেউ টাকা দেয়নি। হতাশ হয়ে সে বাড়িতে চলে যায়।

দুপুরে সামিউল বাসায় খেতে আসলে দেখেন লিজার শয়নকক্ষটি ভিতর থেকে লাগানো। পরে লিজাকে ডাকাডাকি করে কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে দরজাটি ভেঙে লিজার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পান সামিউল। সামিউলের চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে আসেন এবং পুলিশকে ফোন দেন। পরে পুলিশ এসে মরদেহটি উদ্ধার করে।

নিহত লিজার স্বামী সামিউল ইসলাম আভিযোগ করেন, অভাবের কারণে দুই মাস পূর্বে একটি এনজিও থেকে ২০ হাজার টাকা ঋণ নেন লিজা আক্তার। কিস্তির টাকা জোগাড় করতে না পারায় অভিমানে হয়তো সে আত্মহত্যা করেছে।

ফুলবাড়ী থানার পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) মাহামুদুল হাসান বলেন, খরব পেয়ে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হবে।

তবে গৃহবধূ আত্মহত্যার প্রকৃত কারন পারিবারিক কহল না এনজিওর কিস্তির সে সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য