মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) সংবাদদাতাঃ বিএনপি সন্ত্রাস সৃষ্টি করে চলেছে এখনো তারা বসে নাই। ক্ষমতার জন্য তারা মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করে চলেছে। নির্বাচনে তারা পরাজয় হয়ে ঢাকায় গাড়িগুলো পুড়িয়ে দিয়েছে। তাদের মোকাবেলা করা শুধু একা সরকারের নয়, জনগণেরও দায়িত্ব রয়েছে।

নীলফামারীর সৈয়দপুরে মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) দুপুরে বঙ্গবন্ধু চত্বরে পথসভায় তিনি উপরোক্ত মন্তব্য করেন। তিনি রংপুর জেলা মটর শ্রমিক ইউনিয়নের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে যাওয়ার পথে পথসভায় মিলিত হয়ে সভাপতি মন্ডলীর সদস্য বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সাবেক নৌ পরিবহণ মন্ত্রী প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, আমরা শ্রমিক, রাজনীতি বা সড়ক পরিবহণ মালিকদের সঙ্গে একত্রিত হয়ে কাজ করি। আপনারা সাবধানে গাড়ি চালাবেন। যেন কোন দূর্ঘটনা না ঘটে।

বিএনপি সরকার বিরোধী কার্যক্রমে লিপ্ত রয়েছে। তারা সারা দেশে নাশকতার পরিকল্পনা করছে। তারা মনে করেছে ভয় দেখিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকারকে উৎখাত করতে পারবে।

তাদের আন্দোলনে নেতা-কর্মীরা মাঠে থাকে না। তাদের শুধু হুংকার। বিএনপিকে জনগণ প্রত্যাখ্যান করেছে। তারা সরকারের বিরুদ্ধে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করছে। আমার শ্রমিক ভাইদের প্রতি আহবান করছি আপনারা গাড়ি চালানোর সময় সজাগ থাকবেন।

আপনাদের যাত্রী গাড়ি ওঠলে তাদের দায়িত্ব আপনাদের। বিএনপি গাড়িতে কোন নাশকতা করতে না পারে সেজন্য আপনাদের সজাগ থাকতে হবে। এরপর তিনি রংপুরের উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

এ সময় তার সাথে ছিলেন সাবেক প্রতিমন্ত্রী স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন সমবায় মন্ত্রণালয়, সভাপতি বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ সমিতি ঢাকা ও সাধারণ সম্পাদক রংপুর জেলা মটর মালিক সমিতির মশিউর রহমান রাঙা, সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতি বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ফেডারেশন রংপুর বিভাগীয় কমিটির আখতার হোসেন বাদল, বাস-মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক মমতাজ আলী, আওয়ামীলীগ নেতা হিটলার চৌধুরী ভলু প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য