দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরে ট্রাক মালিক নিজেই চালক ও হেলপার সেজে ধান চুরি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাদের বিরুদ্ধে দিনাজপুর কোতয়ালী থানায় ধানের মালিক অভিযোগ করেছেন।

গত ১২ নবেম্বর সন্ধ্যা থেকে ১৩ নবেম্বর ভোর টা এই সময়ের মধ্যে দিনাজপুর জেলার সদর উপজেলার মোহনপুর ব্রীজের অদুরে এই ঘটনা ঘটে।

জয়পুরহাট জেলার সদর উপজেলার কাদোয়াঢোলপাড়ার বাসিন্দা মৃত আলতাফ আলীল ছেলে মেসার্স ভাই ভাই ট্রের্ডাসের মালিক মোঃ মোশারফ হোসেন(৩৫) এর অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, তিনি ২৫০ বস্তায় ৫০০ মন গুটি মামুন ধান ৭ লক্ষ টাকায় দিনাজপুর জেলার সদর উপজেলার গোসাইপুর মেসার্স রুপালী অটোরাইস মিলের মালিক রাসেস্বর বসাকের নিকট বিক্রি করেন।

উক্ত ধান তিনি ঢাকা মেট্রো-ট-১৮-১৮৩৩ নম্বর ট্রাকের মালিক কেএম মনিরুজ্জামানের সঙ্গে সাড়ে ৭ হাজার টাকা ভাড়া ঠিক করে জয়পুরহাট থেকে দিনাজপুরে মেসার্স রুপালী অটোরাইস মিলে পাঠান। ট্রাকের মালিককেএম মনিরুজ্জামান নিজেই ট্রাকটি চালান। তিনি ট্রাকে ধান লোড করে হেলপার মোঃ এনামুল হককে সঙ্গে নিয়ে গত ১২ তারিখ সন্ধ্যায় দিনাজপুরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন।

উভয়ের বাড়ী নাটোর জেলার সিংড়া উপজেলার সোয়াইর গ্রামে। ট্রাকের মালিক ও চালক কেএম মনিরুজ্জামান ১৩ তারিখ দিবাগত ভোর রাত ৪ টার সময় জানায় দিনাজপুর জেলার সদর উপজেলার মোহনপুর ব্রীজের অদুরে রাস্তার উপর একটি গাড়ী দিয়ে বেরিকেড দিয়ে তাদের গাড়ী আটক করে।

এ সময় তাদেরকে এলাপাথারী মারধর করে হাত পাঁ ও চোঁখ বেঁধে তাদেরকে অজ্ঞাত স্থানে ফেলে রেখে ট্রাকসহ ধান গুলি চুরি করে নিয়ে যায়। পরে ধান গুলো আনলোড করে ট্রাকাট রংপুর জেলার মিটাপুকুর উপজেলার দমদম বাজারে পেট্রোল পাম্পে রেখে চলে যায়। পরে আশে পাশের লোকজন এসে চালক কেএম মনিরুজ্জামান( ৩৫) ও হেলপার এনামুল (২৩) কে উদ্ধার করে।

কিন্তু ঘটনাটি সাজানো বলে অভিযোগ এনে ধানের মালিক মেসার্স ভাই ভাই ট্রের্ডাসের মালিক মোঃ মোশারফ হোসেন দিনাজপুর কোতয়ালী থানায় একটি অভিযোগ করেছেন। তার দারণা চালক কেএম মনিরুজ্জামান ও হেলপার এনামুল যোগসাজোস করে অসৎ উদ্দেশ্যে এই ধান চুরি করেছে।

ঘটনাটি ধানের অর্ডারকারী ও দিনাজপুর সদর উপজেলার ট্রাক মালিক সমিতিকে জানানো হয়েছে। ট্রাম মালিক সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বিষয়টি অভিযুক্তদের সঙ্গে আরোচনা করে সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য