গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা সদর ও গ্রাম-গঞ্জে নিয়মনীতি উপেক্ষা করে ব্যাঙের ছাতার মতো যত্রতত্র ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার গড়ে উঠেছে। চিকিৎসাসেবার নামে গড়ে তোলা এসব প্রতিষ্ঠানের পরিবেশ, যন্ত্রপাতি, জনবল, সেবার মান ও সুযোগ-সুবিধা নিয়ে ভুক্তভোগীদের নানা অভিযোগ রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের অধিকাংশেরই সরকারি অনুমোদন নেই। কারও কারও থাকলেও নবায়ন করা হয়নি।

এ ছাড়া বিভিন্ন ইউনিয়ন পর্যায় প্রতিষ্ঠিত অধিকাংশ ক্লিনিকেই স্থায়ী কোনো চিকিৎসক নেই। প্রশিক্ষণবিহীন নার্স দিয়ে রোগীর চিকিৎসাসেবা চলছে। এসব ক্লিনিকে অন্য কোথাও থেকে চুক্তি ভিত্তিক চিকিৎসক নিয়ে এসে রোগীর অস্ত্রোপচার করানো হয়। জরুরি পরিস্থিতি দেখা দিলে একইভাবে বাইরের চিকিৎসক ডেকে এনে রোগীকে দেখাতে হয়। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ক্লিনিকের মালিক ডাক্তার না হওয়া সত্ত্বেও নিজেই অস্ত্রোপচার ও চিকিৎসা দিয়ে থাকেন। এ ধরনের ঘটনায় অধিকাংশ ক্লিনিকে রয়েছে। গর্ভপাত ঘটাতে গিয়ে গত বছর এক একাধিক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এ ধরনের ঘটনা বিভিন্ন ক্লিনিকে মাঝে মাঝে ঘটলেও টাকা দিয়ে পরিস্থিতি ম্যানেজ করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া যায়।

গাইবান্ধা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে,বেশকিছু ডায়াগনস্টিক সেন্টার বিভিন্ন হাটবাজারে স্থাপনের তথ্য রয়েছে। মানসম্মত কোনো যন্ত্রপাতি ব্যবহার না করে মান্ধাতা আমলের দু’একটি যন্ত্রপাতি নিয়ে রক্ত ও প্রস্রাবসহ বিভিন্ন পরীক্ষা করা হচ্ছে। ফলে রোগ নির্ণয়ের প্রকৃত রিপোর্ট আসছে না। আর এ কারণে রোগ নির্ণয়ের প্রকৃত রিপোর্ট না পাওয়ায় চিকিৎসক যে প্রেসক্রিপশন দেন তাতে অনেক ক্ষেত্রে রোগীর উপকারের চেয়ে ক্ষতিই হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এদিকে উপজেলা হাসপাতালের(স্বাস্থ্য কমপেলেক্স) সামনেই এ ধরনের ৮-১০টি প্যাথলজি সেন্টার রয়েছে। কোনো একটি বিষয়ে একাধিক প্যাথলজি সেন্টারে পরীক্ষা করিয়ে দেখা গেছে কারও সঙ্গে কারও রিপোর্টের মিল নেই। এসব রিপোর্টের প্রতি চিকিৎসকদেরও একটি কমিশন রয়েছে বলে জানা গেছে। তবে সিভিল সার্জন অফিসের রিপোর্ট অনুয়ায়ী গোবিন্দগঞ্জে এর সংখ্যা মাত্র ২৮টি কিন্তু বাস্তবে এর সংখ্যা আরো বেশি।

গোবিন্দগঞ্জে প্রায় অর্ধশত ছোট-বড় ডায়াগনোষ্টিক ও ক্লিনিক রয়েছে। উল্লেখ্য যুগ্য কয়েকটি পল্লী ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার,বিশ্বরোড সংলগ্ন,সেবা আলট্রাসনোগ্রাম এ- ডায়াগনোষ্টিক,মহিমাগঞ্জ রোড,পলী ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার,মহিমাগঞ্জ রোড,মুনমুন ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার এ- প্যাথলজি আনিসা ভবন ,শামীমা ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার হাসপাতাল রোড,সুরাইয়া ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার বাজার রোড,মৌ ডায়াগনোষ্টিক এ- কনসালটেসন সেন্টার মহিমাগঞ্জ রোড,টিএন্ডটি অফিসের পেছনে,বাগদা আদর্শ ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার কাটাবাড়ী,একতা ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার ঘোষপাড়া,লাইফ ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার মহিমাগঞ্জ ,নিউলাইফ ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার গোবিন্দগঞ্জ,জনতা ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার বালুয়া বাজার,আর, এম, আর ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার গোবিন্দগঞ্জ, রাদিয়া ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার মহিমাগঞ্জ রোড,জনসেবা ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার পশ্চিম চৌমাথা,সমৃদ্ধি ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার মহিমাগঞ্জ রোড,আদর্শ ডায়াগনোষ্টিক সেন্টার বাজার রোড, পল্লী শিশু ফাউন্ডেশন (পিএসএফ) প্যাথলজি বালুয়াবাজার, কিমি নার্সিংহোম ঝিলপাড়া ও জহুরা মাতৃ সদন বির্শ্ব রোড,সততা ক্লিনিক ঘোড়াঘাট রোড,খন্দকার ক্লিনিক ও হাজী ক্লিনিক বির্শ্বরোড উপজেলা গেট,সন্ধ্যানী ক্লিনিক ফাঁসিতলা বাজার, গোবিন্দগঞ্জ,গাইবান্দা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য