সিরিয়া থেকে কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি বা পিকেকে গেরিলাদের সরিয়ে নেয়ার কথা চিন্তা করছে আমেরিকা। সন্ত্রাসীদের সঙ্গে এই গেরিলাদের বিশেষ সম্পর্ক রয়েছে- এমন কথা বলে সিরিয়ায় তুরস্কের সঙ্গে আমেরিকা সহযোগিতা বাড়াতে চাইছে। আমেরিকা নিজেও অবৈধভাবে সিরিয়াযর ভূখণ্ড দখল করে রেখেছে।

সিরিয়া বিষয়ক মার্কিন বিশেষ দূত জেমস জেফরি জর্দান ভিত্তিক ‘সিরিয়া ডাইরেক্ট নিউজ’ নামে একটি গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাতকারে বলেছেন, “আমরা চাইছি পিকেকে গেরিলাদেরকে সিরিয়া থেকে সরিয়ে নিতে।” সাক্ষাতকারে তিনি স্বীকার করেন, সিরিয়ায় পিকেকে গেরিলাদের অবস্থানের প্রতি সমর্থন দেয়ার কারণে তুরস্কের সঙ্গে আমেরিকার উত্তেজনা বেড়েছে।আমরা এই উত্তেজনা কমাতে চাই।”

সিরিয়া থেকে পিকেকে গেরিলাদের সরিয়ে দেয়ার মূল লক্ষ্য ব্যাখ্যা করে জেমস জেফরি দাবি করেন, উত্তর-পশ্চিম এলাকাছাড়া সিরিয়ার প্রত্যেকটি অঞ্চল নিয়ে তুরস্কের সঙ্গে আমেরিকার ঘনিষ্ঠ সহযোগিতা রয়েছে। তিনি বলেন, “এমনকি উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল নিয়েও তুরস্কের আমাদের সমঝোতা আছে।”

দীর্ঘদিন ধরে আমেরিকা পিকেকে গেরিলাদের সহযোগিতা করে আসছে। সিরিয়ায় তৎপর পিপলস প্রোটেকশন ইউনিট বা ওয়াইপিজি ও সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্সেস বা এসডিএফ নামের দুটি সংগঠনকে অস্ত্র এবং অর্থ দিয়ে সর্বাত্মক সহযোগিতা করে এসেছে আমেরিকা। এ দুটি সংগঠনের সঙ্গে পিকেকে গেরিলাদের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে। সামগ্রিকভাবে কুর্দি গেরিলাদের সঙ্গে আমেরিকা সমন্বয় করে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদকে উৎখাত করার চেষ্টা করেছে এবং সিরিয়ায় ইরান ও রাশিয়ার মতো মিত্রের অবস্থান দুর্বল করার চেষ্টা করেছে।

কিন্তু তুরস্ক সবসময় আমেরিকার এই নীতির বিরোধিতা করে এসেছে। কারণ পিকেকে গেরিলারা তুরস্ক থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে আলাদা রাষ্ট্র গঠনের তৎপরতা চালিয়ে আসছে। ওয়াইপিজি এবং এসডিএফ তাদের সহযোগী গেরিলা সংগঠন হিসেবে কাজ করে। -পার্সটুডে

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য