দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের জেলার প্রতিটি হাট-বাজারে পেঁয়াজ, আলু ও কাঁচা মরিচসহ সকল প্রকার সবজির দাম বৃদ্ধিতে দিশেহারা নিম্ন আয়ের মানুষ।

করোনার কারণে নিম্ন আয়ের মানুষগুলো কাজকর্ম হারিয়ে অনেকে বেকার জীবনযাপন করছেন। এর আগে যারা সপ্তাহের প্রায় প্রতিদিন আয় করত তারা এখন ২/৩ দিন কোনোরকম কাজ করেন। কাজ করার বিনিময়ে প্রাপ্ত অর্থ দিয়ে সংসার চালাতে হিমসিম খাচ্ছেন তারা।

নিয়ন্ত্রণহীন সবজির বাজারে গিয়ে তাদের নাভিশ্বাস ওঠেছে। ব্যবসায়ীরা  জানায়, বাজারে সবে শীতকালীন শাক-সবজি আসতে শুরু করেছে তাই পাইকারি বাজারেও দাম চড়া, গত মাসে লাগাতার বৃষ্টির কারনে আগাম সবজিসহ মাঠের সব ফসল ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। কৃষকদের আমার নতুন করে শাক সবজি চাষ করতে হচ্ছে, তবে কিছুদিনের মধ্যে দাম নিয়ত্রনে আসবে বলে তারা আশা প্রকাশ করেছে।

জেলার বিভিন্ন হাট-বাজার ঘুরে দেখা যায়,প্রতি কেজি আলু ৪০ টাকা,পটল ৫৫ টাকা, কাঁচামরিচ ১৮০ টাকা, রসুন ১০০ টাকা,পেঁয়াজ ৮৫ টাকা, বেগুন ৬০ থেকে ৭০ টাকা, ঢেঁড়স ৫০ টাকা,কচুরমুখি ৫০ টাকা,ফুলকপি ৮০ টাকা, বাঁধাকপি ৬০ টাকা, মুলা ৪০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৪০ টাকা, করলা ৭০ টাকা,কাঁকরোল ৫০ টাকায় বিক্রেয় করা হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য