যুক্তরাষ্ট্রের করোনাভাইরাস আক্রান্ত ভোটাররা ও যারা এখন স্বেচ্ছা-আইসোলেশনে আছেন তারাও ভোট দিতে পারবেন বলে জানিয়েছে দেশটির রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কর্তৃপক্ষ।

আক্রান্তরা সুরক্ষা গাইডলাইন মেনে ব্যক্তিগতভাবে উপস্থিত হয়ে ভোট দিতে পারবেন বলে জানিয়েছে সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) ।

এক্ষেত্রে করোনাভাইরাস আক্রান্ত বা স্বেচ্ছা-আইসোলেশনে থাকা ব্যক্তিদের মাস্ক পরতে হবে, ভোট কেন্দ্রে গিয়ে অন্যান্যদের সঙ্গে ছয় ফুট দূরত্ব বজায় রাখতে হবে এবং ভোট দেওয়ার আগে ও পরে সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে অথবা হাত স্যানিটাইজ করতে হবে বলে জানিয়েছে সিডিসি।

সিডিসি বলেছে, “অসুস্থ হোক বা কোয়ারেন্টিনে থাকুক, ভোটারদের ভোট দেওয়ার অধিকার আছে।”

তবে এই ভোটারদের উচিত হবে কেন্দ্রে গিয়ে ভোট কর্মীদের তাদের অবস্থা জানানো এবং সঙ্গে করে কলম, টিস্যু ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার নিয়ে যাওয়া, বলেছে সিডিসি।

আক্রান্ত ভোটারদের সহায়তাকারী ভোট কর্মীদের ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী সরবরাহ করা ও এসব সামগ্রী সঠিকভাবে ব্যবহার করার প্রশিক্ষণ দেওয়ার কথাও বলেছে যুক্তরাষ্ট্রের এ স্বাস্থ্য কর্তপক্ষ।

বিবিসি জানিয়েছে, এ নিয়মগুলো বহাল থাকলেও সিডিসি যেখানে যেখানে সম্ভব রাস্তার পাশে বুথ বানিয়ে কোভিড-১৯ রোগীদের জন্য ভোট দেওয়ার বিকল্প ব্যবস্থা করারও পরামর্শ দিয়েছে।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে শনাক্ত করোনাভাইরাস রোগীর সংখ্যা ৯২ লাখ ৯১ হাজার ২৪৫ জন, এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৩১ হাজার ৫৬২ জনের। এ হিসাব অনুযায়ী দেশটির তিন শতাংশেরও বেশি লোক মহামারীতে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছে গণমাধ্যম।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে করোনাভাইরাস মহামারী প্রধান ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে বিভিন্ন জরিপে উঠে এসেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য