প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসকে শুরু থেকেই খুব বেশি গুরুত্ব না দেওয়া মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প মহামারী মোকাবেলায় মিশিগানের নেওয়া নীতি ও বিভিন্ন পদক্ষেপের জন্য রাজ্যটির ডেমোক্র্যাট গভর্নর গ্রিচেন হুইটমারের কড়া সমালোচনা করেছেন।

শনিবার মিশিগানের মাস্কিগনে ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচার সমাবেশে সমর্থকরা হুইটমারের বিরুদ্ধে ‘তাকে আটকে রাখো’ স্লোগানও দিয়েছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স ।

নভেম্বরের নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট বা রিপাবলিকান পার্টি যে কারও দিকে হেলতে পারে এমন ‘দোদুল্যমান রাজ্য’গুলোর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের তিন দিনের প্রচার শুরুই হয়েছে মিশিগান দিয়ে।

‘দোদুল্যমান’ এ রাজ্যগুলোর বেশ কয়েকটিতে চার বছর আগের নির্বাচনে ট্রাম্প জিতলেও এবার বেশিরভাগ রাজ্যের জনমত জরিপেই ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন এগিয়ে রয়েছেন।

রয়টার্স জানিয়েছে, রিপাবলিকান প্রার্থী শনিবার মিশিগানে ও উইসকনসিন বড় সমাবেশ করেছেন। এই দুই রাজ্যেই সম্প্রতি করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি দেখা যাচ্ছে। কিন্তু ট্রাম্পের সমাবেশে অংশ নেওয়া বেশিরভাগ মানুষই সামাজিক দূরত্বের নির্দেশনা মানেননি, তাদের কারও মুখে মাস্ক ছিল, কারও কারও ছিল না।

মাস্কিগানের সমাবেশে ট্রাম্প বেশ কয়েকবারই হুইটমারকে লক্ষ্য করে আক্রমণ শানিয়েছেন। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে ডেমোক্র্যাট গভর্নরের নিয়মনীতির সমালোচনা করেছেন, তাকে ‘অসৎ’ বলেছেন এবং হুইটমারকে অপহরণে ডানপন্থি একটি গ্রুপের ষড়যন্ত্র এফবিআইয়ের বানচাল করে দেওয়ার ঘটনা নিয়ে হাস্যরস করেছেন।

“তারা বলে তিনি (হুইটমার) হুমকির মুখে ছিলেন আর এজন্য তিনি আমাকে দোষারোপ করেছেন। আশা করছি, আপনারা তাকে শিগগিরই প্যাক করে পাঠিয়ে দেবেন,” বলেছেন ট্রাম্প।

রিপাবলিকান এ প্রেসিডেন্ট গত কয়েক মাস ধরেই হুইটমারের সমালোচনায় মুখর ছিলেন; মিশিগানের এ ডেমোক্র্যাট গভর্নর বাইডেনের রানিং মেট হওয়ার দৌড়েও ছিলেন।

মাস্কিগানের ওই সমাবেশেই রিপাবলিকান সমর্থকরা হুইটমারকে ইঙ্গিত করে ‘লক হার আপ’ স্লোগান দেয়। ২০১৬ সালের নির্বাচনী প্রচারে সেসময়ের ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের বিরুদ্ধে রিপাবলিকানরা নিয়মিতই এই স্লোগান দিত।

নির্বাচনী প্রচার সমাবেশে ট্রাম্প ও তার সমর্থকদের আচরণ নিয়ে কড়া প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন মিশিগানের গভর্নর হুইটমার।

“এটা ঠিক সেই ধরনের ভাষা, যা আমাকে, আমার পরিবার ও সরকারি কর্মকর্তাদের জীবনকে বিপদের মুখে ঠেলে দেয়, যখন কিনা আমরা আমাদের সঙ্গী নাগরিকদের বাঁচানোর চেষ্টা করছি,” টুইটারে লেখেন এ ডেমোক্র্যাট গভর্নর।

একই প্রসঙ্গে মিশিগানের প্রতিনিধি পরিষদের রিপাবলিকান স্পিকার লি চ্যাটফিল্ডও টুইট করেছেন। বলেছেন, “ট্রাম্প আমাদের গভর্নরকে নিয়ে ওই ‘লক হার আপ’ স্লোগান দেননি। কিন্তু অন্যরা দিয়েছেন এবং এটা ভুল হয়েছে। তাকে (হুইটমার) শুধু শুধু লক্ষ্যবস্তু বানানো হচ্ছে। চলুন আমরা ভিন্ন বিষয় নিয়ে বিতর্ক করি। চলুন নির্বাচনে জিতি। কিন্তু এটা নয়।”

মাস্কিগানে হুইটমারকে নিয়ে ট্রাম্পের মন্তব্যকে ‘বিষাক্ত আক্রমণ’ বলেছে বাইডেনের প্রচার শিবির।

“ট্রাম্পের এ ধরনের আচরণ তার নিরাপত্তাহীনতা এবং সংকটের সময় গভর্নর হুইটমারের নেতৃত্ব যে শ্রদ্ধা অর্জন করেছে তার প্রতি বিদ্বেষের বহিঃপ্রকাশ,” বলেছে তারা।

শনিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট তার প্রচার সমাবেশগুলোতে প্রতিদ্বন্দ্বী বাইডেনেরও ব্যাপক সমালোচনা করেছেন। বলেছেন, বাইডেন জিতলে অর্থনীতি পুনরুদ্ধার ব্যাহত হবে।

“বাইডেন দেশ অচল করে দেবেন, টিকা দেরিতে আনবেন এবং মহামারীকে আরও দীর্ঘস্থায়ী করবেন,” ভোটারদের হুঁশিয়ার করে বলেছেন ট্রাম্প।

রোববার তার নেভাডায় সমাবেশ করার কথা রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিমাঞ্চলীয় এ রাজ্যে ২০১৬ সালের নির্বাচনে তিনি হিলারির কাছে পরাজিত হয়েছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য