দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের বিরলে ধর্মপুর ইউ.সি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মাহফুজের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগের বিচারের দাবীতে বুধবার সকাল ১১ টার দিকে বিরল পৌর শহরে বিক্ষোভ মিছিল করে ইউএনও বরাবরে অভিযোগ দাখিল করেছে ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীবৃন্দ।

শিক্ষার্থীরা জানায়, উপজেলার রাণীপুর ইউপি’র ধর্মপুর ইউ.সি উচ্চ বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী শিক্ষক মাহফুজের কাছে প্রাইভেট না পড়লে তিনি পরীক্ষার খাতায় শিক্ষার্থীদের নম্বর কম দেন। এছাড়া তিনি করোনা কালীণ সময় শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ে এসে তাঁর কাছে বাধ্যতা মূলক ভাবে প্রাইভেট পড়ার জন্য বিভিন্ন হুমকি ও চাপ প্রয়োগ করে।

তিনি প্রশ্নপত্র ফাঁসসহ জে,এস,সি ও এস,এস,সি পরীক্ষার সিট প্লান করার ক্ষেত্রে ও পরীক্ষার খাতা মুল্যায়নে অনিয়ম ও দূর্নীতি করে আসছে। এসব অভিযোগের বিচার চেয়ে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করে বিরল পৌর শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বিরল ইউএনও বরাবরে লিখিত অভিযোগ দাখিল করে।

এব্যপারে সহকারী শিক্ষক মাহফুজের সাথে তাঁর মুঠোফোনে একাধিক বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসির্ভ না করার কারণে কথা বলা সম্ভব হয়নি। তবে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল বাছেদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, করোনার কারণে গত ১৫মার্চ/২০২০ থেকে বিদ্যালয় বন্ধ আছে। আমি প্রায় বিদ্যালয়ে যাই। বিদ্যালয়ের ভিতরে কোন শিক্ষক প্রাইভেট আগেও পড়ায়নি এবং এখনো পাড়ায় না।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীরা কারো ইন্দনে এসব করছে। এর আগে তাঁরা বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোফাচ্ছেল হক সেলু সাহেবের কাছে অনুরুপ অভিযোগ করেছিল। সভাপতি সাহেব শিক্ষার্থীদের চলতি মাসের গত ৮ তারিখে বিদ্যালয়ে উপস্থিত থাকতে বলেছিলেন। কিন্তু সভাপতি সাহেব ওইদিন সকাল থেকে বিদ্যালয়ে অবস্থান করে গেলেও কোন অভিযোগকারী শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়নি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য