দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার ভ্যান চালক হাছেন বাবু হত্যার দায়ে জুয়েল রানা (২০) নামে এক ছিনতাইকারী যুবকে আটক করেছে পুলিশ।

ছিনতাইকারী জুয়েল রানা আদালতে স্বীকার উক্তি মুলক জবান বন্ধিতে জানিয়েছেন, হাছেন বাবুর একটি চার্জার ভ্যান ছিনতাই করার জন্য তাকে হত্যা করা হয়।

গতকাল ছিনতাইকারী জুয়েল রানাকে আটক করে আদালতে সোপর্দ্দ করলে, জুয়েল রানা হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তি মুলক জবানবন্ধি প্রদান করেন বলে নিশ্চিত করেছেন ফুলবাড়ী থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হাছান মাহমুদ।

হত্যা মামলায আটক জুয়েল রানা, উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের বলি ভদ্রপুর গ্রামের সামসুল আলমের ছেলে।

ফুলবাড়ী থানার ওসি ফকরুল ইসলাম ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন ধৃত জুয়েল রানা একজন ছিনতাইকারী, সে দিনমজুরি দেয়ার পাশাপাশি রাস্তায় ছিনতাই করে। জুয়েল রানা সঙ্গীসহ ভ্যান চালক হাছেন বাবুর ভ্যানটি ছিনতাই করে নেয়, কিন্তু হাছেন বাবু তাদের পরিচিত হওয়ায়, ছিনতাইয়ের ঘটনা প্রকাশের ভযে ভ্যানচালক হাছেন বাবুকে হত্যা করে জুয়েল রানাসহ অন্যরা। তিনি বলেন ধৃত জুয়েল রানার দেয়া তথ্য অনুযায়ী ও প্রযুক্তির সাহায্য অন্য হত্যাকারীদেরকে আটক করার জন্য পুলিশ অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে।

উল্লেখ্য চলতি মাসের গত ৮ আগষ্ট দিবাগত রাতে উপজেলার বলিভদ্রপুর গ্রামের ধান ক্ষেতে একই উপজেলার বেতদিঘী ইউনিয়নের সৈয়দপুর গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে ভ্যানচালক হাছেন বাবু (৩২)কে কুপিয়ে হত্যা করে।

৯ আগষ্ঠ সকাল ১০ টায় বলিভদ্রপুর ধান ক্ষেত থেকে পুলিশ হাছেন বাবুর মৃতদেহ উদ্ধার করে। এই ঘটনায় ওইদিন নিহত হাছেন বাবুর চাচা আব্দুর রউফ বাদি হয়ে ফুলবাড়ী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। হত্যা কান্ডের ৪দিনের মধ্যে প্রযুক্তি ব্যবহার হকে হত্যাকারীকে আটক করে পুলিশ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য