দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরে ১ স্কুল পড়ুয়া মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে রবি সরেন (২৫) নামে ১ আদিবাসী যুবকের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ডের রায় প্রদান করেছেন বিচারক। এছাড়াও বিচারক রবি সরেনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৩ মাসের কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করেন।

আজ বুধবার (১৪ অক্টোবর) দুপুর ২টায় দিনাজপুরের নারী ওশিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) শরীফ উদ্দিন আহমেদ এই রায় প্রদান করেন।

যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ডপ্রাপ্ত রবি সরেন জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার মহুগাঁও গ্রামের মৃত হরি সরেনের ছেলে।

দিনাজপুর কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক ইসরাইল হোসেন জানান, ২০১৫ সালেরে ২ সেপ্টেম্বর দুপুর আড়াইটায় রবি সরেন একই এলাকার ৫ম শ্রেণীর ১ছাত্রীকে ফুসলিয়ে নিজ বাড়ীতে নিয়ে গিয়ে মেয়ের ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করেন। এসময় মেয়ের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে ধর্ষক পালিয়ে যায়।

পরদিন ৩ সেপ্টেম্বর মেয়ের বাবা বাদী হয়ে রবি সরেনের বিরুদ্ধে ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের (সংশোধনী-০৩)এর ৯(১) ধারায় ধর্ষণ করেন। মামলার পর বীরগঞ্জ থানা পুলিশ ধর্ষক রবি সরেনকে আটক করেন।

একই বছরের ২২ সেপ্টেম্বর তৎকালীন বীরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আমজাদ হোসেন প্রধান মামলাটি তদন্ত করে রবি সরেনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশীট) পেশ করেন। বিজ্ঞ বিচারক আজ রবি সরেনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৩ মাসের কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করেন।

মামলাটিতে মোট ১০জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়। মামলাটি রাষ্ট্রপক্ষে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি তৈয়বা বেগম ও আসামী পক্ষে মোঃ মোকলেসুর রহমান দুলাল পরিচালনা করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য