রংপুরের পীরগঞ্জে বিতর্র্কিত জমির দখল নিতে না পেরে শ্রী খুশী কুমারের (৩২) নেতৃত্বে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা-মারপিটের ঘটনায় ২ জন আহত হয়েছে। আহত রাজকুমারকে আশংকাজনক অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ এক হামলাকারীকে গ্রেফতার ও ঘটনাস্থল থেকে চাইনিজ কুড়ালসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে ঘটনাস্থলে অস্থায়ী গ্রাম পুলিশ ক্যাম্প বসানো হয়েছে। উপজেলার ভেন্ডাবাড়ী ইউনিয়নের বিশলা গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে। মামলা ও প্রত্যক্ষদর্শী জানায়, উপজেলার বিশলা গ্রামের দুর্গাচরন সরকার তার ক্রয় সুত্রে বিশলা গ্রামে ৬০ শতক জমি ভোগদখল করে আসছিলো। ওই জমিতে দুর্গাচরনের ৪ ছেলের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ মৎস্য ও পোল্ট্রি খামার রয়েছে। প্রতিবেশী নেপাল চন্দ্রের ছেলে খুশী কুমার জমিটি তার ক্রয় দাবি করে দখল নেয়ার চেষ্টা করে আসছে। সম্প্রতি ওই মৎস্য খামারের মাছও লুট করা হয়। ইতিপূর্বেও জমিটির দখলকে কেন্দ্র করে হামলার ঘটনায় খুশীর বিরুদ্ধে থানায় ও আদালতে পৃথক মামলা হয়। একপর্যায়ে গত সোমবার দিবাগত রাতে খুশী তার লোকজনসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে দোকানে হামলা চালিয়ে রাজকুমার ও ফুলকুমারকে মারপিট করে। এতে আশংকাজনক অবস্থায় রাজকুমারকে রংপুর মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। পরদিন মঙ্গলবারও বেলা ১২ টার দিকে দুর্গাচরনের পরিবারের মাঝে আতঙ্ক ছড়াতে খুশীর নেতৃত্বে ২টি মোটর সাইকেলে ৪ জন প্রকাশ্যে দেশীয় ধারালো অস্ত্র নিয়ে দুর্গাচরনের বাড়ীর সামনে মহড়া দেয়। এ দৃশ্য সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়ে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখতে ভেন্ডাবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান ওই জমিতে গ্রাম পুলিশদের দিয়ে অস্থায়ী ক্যাম্প করে পাহারায় রেখেছেন। এ ব্যাপারে দুর্গাচরনের ছেলে ফুল কুমার বাদী হয়ে খুশীকে প্রধান আসামি করে থানায় মামলা করেছে। পুলিশ এ মামলায় পংকজ বর্মন (২৬) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে। মামলার বাদী ফুলকুমার জানায়, খুশী তার লোকজন নিয়ে প্রকাশ্য দিবালোকে দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আমাদের বাড়ীর সামনে চলাচলের রাস্তায় মহড়া দেয়। আমাদের বাড়ীতে স্থাপিত সিসি ক্যামেরায় ওই মহড়ার দৃশ্যের ভিডিও রয়েছে। খুশীর কারণে আমরা বাবার জমিতে বসবাস করতেও ভয় পাচ্ছি। ভেন্ডাবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম বলেন, জমিটি নিয়ে কয়েক বছর ধরে একাধিক ঘটনা ঘটায় গ্রাম পুলিশ পাহারায় রেখেছি। ওসি সরেস চন্দ্র জানান, ওই জমিতে আদালতের জারি করা ১৪৪ ধারা অমান্য এবং জমিতে মারামারির ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য